ঘরের মধ্যে আচমকাই দেখা গেলো বিশাল কোবরা, ধরতে গিয়েই বিপত্তি, ভাইরাল ভিডিও!

নিজস্ব প্রতিবেদন: সর্প প্রজাতির মতো ভয়ঙ্কর প্রাণী এই দুনিয়ায় প্রায় নেই বললেই চলে। এই প্রজাতিটির বেশিরভাগ সাপ বিষহীন হলেও যেসব সাপ বিষধর হয় তাদের এক ছোবলেই মানুষের প্রাণ সংশয় দেখা দেয়। অনেক ক্ষেত্রে আকারে ছোট হলেও তাদের গায়ে অনেকটাই শক্তি থাকে।অনেক জায়গাতেই তাই নিয়ম মেনে সাপকে পুজো করা হয় সমস্ত রকম বিপদ থেকে উদ্ধার পাওয়ার জন্য। কিন্তু গ্রামে গঞ্জে খুব সহজেই এইসব বিষধর সাপের উপদ্রব দেখতে পাওয়া যায়।অনেক ক্ষেত্রেই এই সব সাপ দেখতে পেলে মানুষ বিনা কারণেই মেরে ফেলেন। যা হয়ত একেবারেই উচিত নয়। কারণ এতে তারা আরো ক্ষুদ্ধ হয়ে আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে।কিছুদিন আগে আমরা নেটদুনিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হতে দেখেছিলাম যেখানে দেখা যাচ্ছিল ঘরের ভিতরে খাটের নিচে একটি সাপ ঢুকে যাওয়ায় ঘরে থাকা যুবতী ওই সাপটিকে অত্যন্ত সাহসিকতার সাথে বাইরে বের করে নিয়ে আসেন।ভয় পেলেও তিনি কিন্তু সাপটিকে মেরে ফেলেননি বরং বাইরে ছেড়ে দেওয়ার জন্য ঝুড়ি দিয়ে আলাদা করে রাখেন। এই ভিডিওটি বেশ অভিভূত করেছিল দর্শকদের।

সাপে দংশন করলে অনেক জায়গাতেই ওঝা এবং পণ্ডিতদের সাহায্য নেওয়া হয়। কিন্তু সাপে কাটার আসল চিকিৎসা চিকিৎসকেরাই করতে পারেন তা হয়ত অনেকেই বিশ্বাস করেন না;যার ফলস্বরুপ প্রাণহানি হয় মানুষের। সোশ্যাল মিডিয়াতে সাপ সংক্রান্ত প্রায়শই নানান ধরনের ভিডিও ভাইরাল হতে দেখা যায়। অন্যান্য সব ভিডিওর মত এই ভিডিওগুলিকেও মানুষ অত্যন্ত আগ্রহের সাথে দেখে থাকেন। সম্প্রতি এরকমই একটি ভিডিও নেটদুনিয়ায় লক্ষ্য করা গিয়েছে।তুমুল ভাইরাল এই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে, জগন্নাথ মন্দিরের পাশের ঘরে একটি বিশাল আকৃতির কোবরা সাপ প্রবেশ করেছে কোন ভাবে। আমরা জানি সাপেদের মধ্যে কিং কোবরা সবথেকে বিষধর এবং ভয়াবহ। এই সাপটি যেকোনো পূর্ণবয়স্ক পশু বা মানুষকে সহজেই দংশন করে মেরে ফেলতে পারে। মন্দিরের পাশের ঘরে ঢুকে সাপটি একটি ফলকের মধ্যে জড়িয়ে রয়েছে। এরইমধ্যে মন্দিরের কর্মকর্তারা সাপ বিশেষজ্ঞদের খবর দেন।তারাই এসে ওই সাপটিকে উদ্ধার করার চেষ্টা করেন। আপাতদৃষ্টিতে এই কাজটি একেবারেই সহজ ছিল না তা ভিডিও দেখেই বোঝা যায়। সাপটিকে ধরার জন্য বেশ কসরত করতে হয় তাদের।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে ওই সাপটিকে ধরার জন্য সকলে মন্দিরের ঘরে প্রবেশ করেন। দেখা যায় সেই মুহূর্তে সকলের দিকে সাপটি ফণা তুলে চেয়ে রয়েছে। এরপর সরীসৃপ টিকে ধরার জন্য একটি স্টিলের লাঠি বাড়িয়ে দেওয়া হয়। সাপটি কিছুটা কাছে আসতেই তার লেজ হাতে ধরে নেন সাপ বিশেষজ্ঞদের মধ্যে একজন। প্রসঙ্গত উপস্থিত জনতার মধ্যে অনেকেই এই ঘটনার ভিডিও বানিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে দেন। মুহূর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে এই ভিডিওগুলি। সবথেকে বেশি ভাইরাল হয়েছে নাগলোক নামে অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেল থেকে শেয়ার করা একটি ভিডিও। বর্তমানে ভিডিওটির দর্শক সংখ্যা লক্ষাধিক এর উপর এবং লাইক সংখ্যা ৫০ হাজারের কাছাকাছি। হাতে কিছুটা সময় নিয়ে আপনিও এই অসাধারণ ভিডিওটি দেখে আসতে পারেন।রইলো ভিডিও।

Back to top button