অক্ষয় তৃতীয়ার দিন কি কি শুভ কাজ করা উচিত, আর কি কি কাজ একদমই করবেন না জেনে নিন

বং ট্রেন্ডি ডেস্ক: হিন্দু ধর্মে অক্ষয় তৃতীয়ার দিনটিকে অত্যন্ত শুভ মনে করা হয়। হিন্দু পঞ্জিকা অনুযায়ী বৈশাখ মাসের শুক্লপক্ষের তৃতীয়ার দিনে অক্ষয় তৃতীয়া পালন করা হয়। অক্ষয় তৃতীয়া পাপ নাশকারী এবং সুখ প্রদানকারী একটি তিথি হিসেবে গ্রাহ্য করা হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক অক্ষয় তৃতীয়ার তিথি

অক্ষয় তৃতীয়ার তিথি- এই বছর ১৪ মে অক্ষয় তৃতীয়া পালন করা হবে। অক্ষয় তৃতীয়া শুরু ১৪ মে ২০২১ সকাল ৫টা ৩৮ মিনিট। অক্ষয় তৃতীয়া শেষ হবে ১৫ মে সকাল ৭টা ৫৯ মিনিট। পুজো করার শুভক্ষণ হল সকাল ৫টা ৩৮ মিনিট থেকে দুপুর ১২টা ১৮ পর্যন্ত।

অক্ষয় শব্দের অর্থ যার কোন ক্ষয় নেই অর্থাৎ যে জিনিসের বিনষ্ট হয় না, তাই এই দিনে ধন সম্পদ কিনলে তা অক্ষয় হয়, আবার অনেকে মনে করেন এই দিনে কোন শুভ কাজ করলে তার ফল অনন্তকাল থাকে। অনেকেই এই দিনে দান করেন, এছাড়াও এই দিনে অনেক ব্যবসায়ীরা হালখাতা ও করেন আসলে এই দিন কুবের লক্ষ্মী দেবীকে পুজো করেছিলেন বলে কথিত আছে। প্রাচীনকাল থেকেই বৈশাখ মাসের শুক্লপক্ষের তৃতীয় দিন শুভ ধরা হয় অর্থাৎ এই দিনটিকে অক্ষয় তৃতীয়া বলা হয়। প্রতিবছরের ন্যায় এ বছরও এই অক্ষয় তৃতীয়ার দিনে শুরু হয় জগন্নাথ বলরাম সুভদ্রার নতুন রথ তৈরি।পুরান মতে বিষ্ণুদেবের ষষ্ঠ অবতার হলো পরশুরাম, এই দিনটি পরশুরামের জন্মদিন হিসেবে পালন করা হয়, জেনে নেওয়া যাক কেন এই দিনটি বিশেষ দিন? কি তার মাহাত্ম্য?

এই দিন কী কী শুভ কাজ করা উচিত

এই দিন রাধাকৃষ্ণের যুগল মূর্তি বাড়িতে প্রতিষ্ঠা করতে হবে এবং সেই মূর্তি যুগলের চরণে চন্দন দিতে হবে। অক্ষয় তৃতীয়ার দিন গণেশ ও মা লক্ষ্মীর পুজো করুন এবং তাঁদের চরণে সিঁদুরের ফোঁটা দিন। এই দিন ব্রাহ্মণকে জল, পাখা, বস্ত্র, চন্দন, নারকেল এবং অন্ন দান করতে হবে। এই দিন সকালে স্নান করার পর গরিবকে বস্ত্র দান করুন এবং তাঁদের অন্ন দান করুন। এগুলি সংসারের জন্য অত্যন্ত শুভ ফল বয়ে আনে।

এই দিন বাড়িতে সোনা, রুপো কিনে আনতে হবে। সোনা, রুপো সম্ভব না হলে যে কোনও ধাতুর কোনও জিনিস কিনে আনা খুব শুভ। এই দিন পাঁচ জন বিবাহিত মহিলাকে আলতা ও সিঁদুর দান করা অত্যন্ত শুভ বলে মানা হয়। এই দিন যে কোনও মন্দিরে মরশুমের ফল দান করলেও শুভ ফল পাওয়া যায়।

এই বাড়ি বা জমি ক্রয় করা খুবই ভাল। এ ছাড়া গাড়ি এবং বাড়ির নানা আসবাবপত্র কিনলে সংসারে শ্রীবৃদ্ধি ঘটে। গাড়ি, বাড়ি, জমি বা সোনা, রুপো কেনা সব সময় সম্ভব হয় না। সে ক্ষেত্রে কাঁচা সব্জি, যে কোনও শস্যদানা, ঘি এবং বাড়ির বাচ্চাদের জন্য কিছু জিনিস অবশ্যই কিনে আনুন।

এই দিন কী কাজ একদমই করবেন না 

অক্ষয় তৃতীয়ার তিথিতে কখনও তুলসী পাতা তুলবেন না। এতে শ্রীবিষ্ণু এবং মা লক্ষ্মী অত্যন্ত রুষ্ট হন। এই দিন কারও মনে দুঃখ বা আঘাত লাগে এমন কথা বলা যাবে না। এই দিন বাড়ি থেকে নুন, তুলো, সরষে এবং তেল কাউকে দেবেন না।

Back to top button