বাসে উঠলেই দিতে হবে ১০ টাকা, প্রতি চার কিমিতে ভাড়া কত বাড়বে?

নিজস্ব প্রতিবেদন: ২০১৮ সালে ভাড়া বাড়ানো নিয়ে আন্দোলন করার পর, রাজ্য সরকার মাত্র এক টাকা বৃদ্ধি করেছিল বাসের ভাড়া। তারপর থেকে এখনো পর্যন্ত বাসের ভাড়া এক টাকাও বৃদ্ধি পায়নি। এদিকে জ্বালানি এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম হু হু করে বাড়ছে। এই সময়ে দাঁড়িয়ে বাস মালিক সংগঠন প্রশ্ন তুলছে, সব জিনিসের দাম বৃদ্ধি হওয়া সত্ত্বেও কেন বৃদ্ধি হচ্ছে না বাসের ভাড়া? তাদের দাবি বাসের ভাড়া বৃদ্ধি না করলে বাস চালাতে পারবেন না তারা। পাশাপাশি তারা দাবি জানিয়েছে, বাসগুলিকে একটি আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণার। বাসগুলিকে সচল করে রাস্তায় নামাতে অনেক খরচ হবে, এমনটাই তাদের দাবি।

জ্বালানির দাম রীতিমতো বৃদ্ধি পেয়েছে বিগত কয়েক বছরে। করোনা মহামারীর জন্য প্রচুর দিন বাস বন্ধ যার ফলে চরম লোকসানের সম্মুখীন হয়েছে বাস মালিকরা। সেজন্য বাস এবং মিনিবার সংগঠন রাজ্য সরকারের কাছে বাসের ভাড়া বৃদ্ধির আবেদন জানিয়েছে। করোনা মোকাবিলার জন্য রাজ্যে পরিবহন ব্যবস্থা সম্পূর্ণ বন্ধ যার ফলে বিপুল লোকসানের সম্মুখীন হয়েছে বাস মালিকরা। জ্বালানির দাম এখন আকাশছোঁয়া বাসের ভাড়া বৃদ্ধি না করা হলে বাস চালানো যাবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে বাস মালিক সংগঠন।

বাস মালিক সংগঠনগুলি রবিবার আলোচনায় বসে, নতুন ভাড়া নিয়ে আলোচনা করে তারা। তারা জানান ১০ টাকা ভাড়া থাকবে ০ থেকে ৪কিলোমিটার রাস্তা যাওয়ার জন্য। অর্থাৎ ন্যূনতম ১০ টাকা দিতে হবে বাসে উঠলেই। ৮ কিলোমিটার রাস্তা যাওয়ার জন্য ভাড়া ১৫ টাকা। ২০ টাকা ভাড়া ৮ থেকে ১২ কিলোমিটার যাওয়ার জন্য এবং ২৫ টাকা, ১২ থেকে ১৬ কিলোমিটার যাওয়ার জন্য।

মিনি বাসে ৩ কিলোমিটার যাওয়ার জন্য ভাড়া ১০ টাকা, ১৫ টাকা ভাড়া ৩ থেকে ৬ কিলোমিটার যাওয়ার জন্য, ২০ টাকা ভাড়া ৬ থেকে ১০ কিলোমিটার যাওয়ার জন্য। তবে এখনো সন্দেহ রয়েছে সরকার বাস সংগঠনগুলির এই দাবির সঙ্গে একমত হবে কিনা। বাস মালিক সংগঠনের রায়ের আগে বহুবার ভাড়া বৃদ্ধির জন্য রাজ্য সরকারের কাছে দাবি জানিয়েছে। আগে কোনো ফল না মিললেও এবার কোন লাভ হবে কি না তা নিয়ে চিন্তায় আছে বাস মালিক সংগঠনগুলি।

Back to top button