চণ্ডীপুরের প্লাবিত এলাকা পরিদর্শনে সোহম, জল ডিঙিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় ছুটে গেলেন তিনি

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইয়াসের দাপটে ছারখার চারিদিক। গঙ্গায় জলের পরিমান বাড়তে থাকায় সবার মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। ইতিমধ্যে জল সরানোর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গেছে । ঘূর্ণিঝড়ের পাশাপাশি আজ ভরা কোটাল হওয়ায় এই জলের চাপ বেশি ছিলো বলে জানা যাচ্ছে। যসের দাপটে আজ গঙ্গাতেও চলছে ভীষণ ঝোড়ো হাওয়া। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন এলাকায় জল ঢুকে ডুবে গিয়েছে। প্রশাসনের তরফ থেকে বহু পরিবারকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে, শেল্টার হোমে রাখা হয়েছে অনেক স্থানীয়দের।

বুধবার সকাল থেকেই সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন চন্ডীপুরের তৃণমূল বিধায়ক সোহম চক্রবর্তী। সকাল থেকে ঝড়ের তান্ডব চলাকালীন সেখানকার প্লাবিত অঞ্চলগুলি পরিদর্শন করে দেখছেন সোহম। বিশেষ করে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাগুলিতে যত দ্রুত সম্ভব স্বাভাবিক করা যায় সেই দিকটা বিশেষ ভাবে লক্ষ রাখছেন তিনি। উদ্ধার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে, তবে এখনও প্রাকৃতিক দুর্যোগ পুরোপুরি ভাবে কাটেনি। প্রশাসন এবং সোহমের সহকর্মীরা সবরকম সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন যাতে খুব তাড়াতাড়ি এই দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে পারে দুর্যোগ কবলিত এলাকা গুলি।

Back to top button