‘যশে’র দাপটে উত্তাল হবে পশ্চিমবঙ্গ উপকূল, সোমবার থেকে ঝড়-বৃষ্টি এইসব জেলায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: ‘আমফান’– এর রেশ কাটতে না কাটতেই ঘূর্ণিঝড় এসে হাজির পশ্চিমবঙ্গের উপকূল অঞ্চলে। দীঘার উপকূলে প্রায় ‘আমফান’- এর প্রায় সমগতি সম্পন্ন ঘূর্ণিঝড় ‘যশ’ আছড়ে পড়তে চলেছে। বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হবে সোমবার, এই নিয়ে যথেষ্ট আতঙ্কিত উপকূল অঞ্চলের মানুষ।

নিম্নচাপের প্রভাবে মঙ্গলবার থেকেই কলকাতাতে শুরু হবে বৃষ্টিপাত। শুক্রবার এর মধ্যে নিম্নচাপের সৃষ্টি হবে মধ্য বঙ্গোপসাগর এবং তা রবিবার নাগাদ গভীর নিম্নচাপের আকার নেবে। এবং সোমবার নাগাদ এই গভীর নিম্নচাপ থেকে সৃষ্টি হবে ঘূর্ণিঝড়ের তারপর তা হতে শুরু করবে উত্তর-পশ্চিম দিকে। আবহাওয়া দপ্তর-এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, বুধবার সকালের মধ্যেই এই ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়তে পারে পশ্চিমবঙ্গ- উড়িষ্যা উপকূলে।

আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে সোম মঙ্গলবার থেকেই হালকা বৃষ্টিপাত শুরু হবে কলকাতায় কোথাও কোথাও দেখা যেতে পারে ভারী বৃষ্টিপাত। বইতে পারে ৪৫ থেকে ৫৫ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া। মঙ্গলবারের দিকে এই ঝড়ের গতিবেগ হতে পারে ৮৫ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। রাজ্যের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই উপকূল অঞ্চলে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে রবিবার থেকে উত্তাল হবে সমুদ্র। মৎস্যজীবীদের কড়া ভাবে নিষিদ্ধ করা হয়েছে সমুদ্রে নামতে। ‘টাওকতে’ নামক ঘূর্ণিঝড় কিছুদিন আগে দাপট দেখিয়ে ছে ভারতের পশ্চিম উপকূলে। সেইজন্যই পশ্চিমবঙ্গের ও উড়িষ্যা চিন্তায় আছে এই ঘূর্ণিঝড় যশ-কে নিয়ে।

Back to top button