তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে সরকারি ত্রাণের ১০ বস্তা চাল মেলায় তুলকালাম কাণ্ড, চাঞ্চল্যকর কান্ড খড়গপুরে

নিজস্ব প্রতিবেদনবিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির তৃণমূলের উপর ‘চাল চুরি” করার অভিযোগ তোলে। এমনকি রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের বিরুদ্ধে হাজার হাজার কোটি টাকার রেশন দুর্নীতির অভিযোগ তোলা হয় বিজেপির তরফ থেকে। নির্বাচনী প্রচারে প্রায় প্রত্যেক জনসভায় তৃণমূলকে চাল চোরের তকমা দিয়েছে বিজেপি। গেরুয়া শিবির অভিযোগ করে যে, আমফান আর করোনাকালে কেন্দ্র থেকে পাঠানো চাল ও রেশন গরিবদের না দিয়ে নিজেরাই ভোগ দখল করে। আর এরই মধ্যে আবারও তৃণমূলের কর্মীর বাড়ি থেকে ত্রাণের চাল উদ্ধার করার পর তুলকালাম কাণ্ড ঘটল।

একেতেই আমফানের ত্রাণ বিলি নিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করেছিল বিজেপি। আর সেই কারণে এবার ত্রাণ বিলি প্রক্রিয়া স্বচ্ছ রাখতে ইয়াসের ত্রাণ বিলি থেকে দলকে দূরে সরিয়ে রেখে সম্পূর্ণ দায়িত্ব প্রশাসনের উপর দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি এই পদক্ষেপ নিয়ে স্পষ্ট বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, তিনি ত্রাণ বিলিতে আর দুর্নীতি বরদাস্ত করবেন না। কিন্তু তৃণমূল কর্মীর বাড়ি থেকে এবার সরকারি ত্রাণের চাল মেলায় উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়।

খড়গপুরের ২ নং ব্লকের এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে হইচই পড়ে গিয়েছে। গত শুক্রবার রাতে খড়গপুরের ২ নং ব্লকের চাঙ্গুয়ালে তৃণমূল দলের কর্মী লক্ষ্মণ ধাড়ার বাড়ি থেকে সরকারি ত্রাণের প্রায় ১০ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। তখনই তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে পৌঁছে যান ব্লক প্রশাসনের আধিকারিক। এরপর এলাকার মানুষরা বিডিও অফিসের কর্মীদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন।

খড়গপুরের ২ নং ব্লকের চাঙ্গুয়ালের পঞ্চায়েত অফিসে ইয়াস ঘূর্ণিঝড়ে কবলিত মানুষ দের বিলি করার জন্য প্রচুর চালের বস্তা মজুত করা হয়েছিল। সেখান থেকে বৃহস্পতিবার কয়েকজন তৃণমূল নেতা ১০ বস্তা চাল নিয়ে নেন। আর সেই ১০ বস্তা চালই লক্ষ্মণ ধাড়ার বাড়ি থেকে পাওয়া যায়। চাঙ্গুয়াল পঞ্চায়েত প্রধান সীতা টুডু বলেন যে, “বৃহস্পতিবার পঞ্চায়েতের কয়েকজন কর্মী অফিসে উপস্থিত ছিলেন। সেই সময় কয়েকজন নেতা এসে কর্মীদের উপর চাপ দিয়ে চালের বস্তা নিয়ে যান। তাঁরা জানান যে, তাঁরা ত্রাণ বিলি করবেন। এটা অন্যায়। আমি দলের কাছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাস্তির আবেদন করছি।” এই ঘটনার পরিপেক্ষিতে বিডিও অফিসের সাহেব সন্দীপ মিশ্র বলেন, ‘আমাদের কাছে অভিযোগ আসা মাত্রই আমরা প্রতিনিধিদের পাঠিয়ে চালের বস্তা উদ্ধার করে পঞ্চায়েতে জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে।”।।

Back to top button