বাংলায় ফের টর্নেডো! অশোকনগরে ঝড়ে গুঁড়িয়ে গেল বাড়ি, রইল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদনআবারও বাংলায় তাণ্ডব চালাল টর্নেডো(ইয়াস)। ঘূর্ণিঝড়ের দাপট যেন থামছেই না। ফের ঘটনাস্থল উত্তর ২৪ পরগনা। বৃহস্পতিবার সকালে অশোকনগর পুরসভার ২২ নং ওয়ার্ডের শক্তিনগর এলাকায় আচমকা ইয়াসের তাণ্ডব। কয়েক মিনিটের ঝড়ের তাণ্ডবে আট থেকে দশটি বাড়ি পুরো ভেঙে যায়। কিছু বাড়ির টিনের চাল উড়ে যায়। বহু মানুষ ঘরছাড়া হয়ে পড়েছেন।

জানা যাচ্ছে, অশোকনগর বিধানসভার ১৪ নম্বর, ১৫ নম্বর, ২২ নম্বর সোমলক্ষ্মী কলোনি ও গুমার একাংশ এলাকায় এই ঘূর্ণিঝড় তাণ্ডব চালায়। ঠিক হালিশহরের মতো এই ঘূর্ণিঝড় আবার দেখা গেল উত্তর ২৪ পরগনা অশোকনগর এলাকায়। নিমেষের মধ্যে প্রায় ২০ থেকে ৩০টি বাড়ির চাল হাওয়ায় উড়ে যায়।উল্লেখ্য, মঙ্গলবার বিকেলে আচমকাই ব্যান্ডেল ও হালিশহরে টর্নেডো হয়। আকাশ কালো করে ধেয়ে আসতে দেখা যায় ইয়াসকে। কার্যত এই ধ্বংসলীলা চলে ব্যান্ডেল চার্চ সংলগ্ন এই এলাকায়। ভেঙে পড়ে দোকানপাট-গাছপালা। একইভাবে কয়েক মুহূর্তের জন্য নৈহাটি সহ হালিশহরে একাধিক এলাকা তছনছ হয়ে যায়। একাধিক বাড়ি ভেঙে পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

এই ঘটনায় দু’জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। বুধবার ওড়িশায় আছড়ে পড়ে অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ইয়াস (Cyclone Yaas)। বালেশ্বরের কাছে ধামরায় তাণ্ডব চালায় ইয়াস। ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবের ফলে লন্ডভন্ড হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের দিঘা (Digha)। ইয়াস ও ভরা কোটাল-এই দুইয়ের জেরে বাংলার বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত, দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন গ্রাম জলমগ্ন হয়ে পড়ে, একাধিক নদীবাঁধ ভেঙে যায়। ইয়াস চলে গেলেও এখনও বাংলায় বৃষ্টি চলছে। বৃষ্টির সঙ্গে বয়ে চলেছে ঝোড়ো হাওয়া।

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের তাণ্ডবে বিপর্যস্ত এলাকাগুলি পরিদর্শনে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জানা যাচ্ছে, আগামী ২৮ মে হেলিকপ্টারে করে হিঙ্গলগঞ্জ পরিদর্শন করবেন মমতা, সেখান থেকে সাগর ও দিঘায়ও যাবেন। দিঘায় রিভিউ বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী এবং ২৯ তারিখ কলকাতায় ফিরবেন মমতা, এমনটাই জানিয়েছেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়।

Back to top button