অক্টোবরে নয়, দেড় মাসের মধ্যেই আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ, সাবধানবাণী এইমস প্রধানের

নিজস্ব প্রতিবেদন: শত হাতিয়ার, শত সাবধানতা সত্ত্বেও করোনা ভাইরাসের তৃতীয় ধাক্কা এড়াতে পারবে না ভারত। অক্টোবর নয়, আগামী ৬ থেকে ৮ সপ্তাহের মধ্যেই দেশে ফের ভয়াবহ রূপ নিয়ে আছড়ে পড়বে মারণ ভাইরাসের আরেকপ্রস্ত ঢেউ। এমনই সাবধানবাণী দিলেন এইমসের (AIIMS) প্রধান রণদীপ গুলেরিয়া। আগামী ৬-৮ সপ্তাহে মধ্যে আছড়ে পড়তে পারে এই ঢেউ।

তিনি আরও জানান, তৃতীয় ঢেউয়ের আঘাতে যাতে সর্বাধিক ক্ষতি এড়ানো যায়, সেজন্য টিকাকরণের হার বৃদ্ধি করাই একমাত্র উপায়। তবে এই বিপুল জনসংখ্যার দেশে সকল মানুষকে টিকাকরণের আওতায় আনা অত্যন্ত চ্যালেঞ্জের বিষয়। এমনকি AIIMS প্রধান ডক্টর রণদীপ গুলেরিয়া এই করোনা ভাইরাসের ডেল্টা প্লাস প্রজাতী নিয়েও আতঙ্ক ব্যক্ত করেছেন।

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আঘাত নিরাময় করে আস্তে আস্তে পুরনো ছন্দে ফিরছে দেশ। বহু জায়গায় ইতিমধ্যেই অনলক পর্ব শুরু হয়ে গিয়েছে। ফলে আবার সেই পুরনো ভিড়ের ছবি দেখা যাচ্ছে। তাই সংক্রমণের আশঙ্কা আবারও বাড়ছে। ডক্টর রণদীপ গুলেরিয়া

এই বিষয়টিতে গুরুত্ব দিয়ে বলেন, “আনলক শুরু হতেই করোনাবিধি শিকেয় উঠেছে। ফের মানুষের মধ্যে অসচেতনতা ধরা পড়েছে। চারপাশ দেখে মনে হচ্ছে, করোনার প্রথম ও দ্বিতীয় ঢেউ থেকে আমাদের কিছুই শিক্ষা হয়নি। ফের ভিড় জমছে, মানুষ জড়ো হচ্ছে। এর জন্যই ধীরে ধীরে সংক্রমণ বাড়বে। ছয় থেকে আট সপ্তাহের মধ্যে সংক্রমণ বাড়তে পারে।” যদিও তিনি তৃতীয় ঢেউ এড়ানোর উপায়ও বলে দিয়েছেন। AIIMS প্রধান জানিয়েছেন, মানুষের সচেতন ব্যবহারই একমাত্র সংক্রমণ রুখতে পারে।

Back to top button