বাংলার বাড়িতে বাড়িতে বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দেওয়াই লক্ষ্য, ৭ হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ মোদী সরকারের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ২০১৯ সালের ১৫ আগস্ট রাজ্যের প্রত্যেকটি বাড়িতে সুপেয় ও সুরক্ষিত জল পৌঁছে দিতে “জল জীবন” প্রকল্প চালু করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি জানিয়েছিলেন যে, ২০২৪ সালের মধ্যেই সরকার বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দেবে সবার বাড়িতে। এর জন্য প্রথম পর্বে পশ্চিমবঙ্গকে ২০১৯-২০ অর্থবর্ষে ৯৯৫.৩৩ কোটি টাকা দিয়েছিল কেন্দ্র। ২০২০-২১ অর্থবর্ষে তা বাড়িয়ে করা হয় ১৬১৪.১৮ কোটি টাকা। এই অর্থবর্ষে আরও একবার জল জীবন প্রকল্পের জন্য পশ্চিমবঙ্গকে ৭০০০ কোটি টাকা দেওয়ার কথা দিল কেন্দ্র।

কেন্দ্র সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, এই প্রকল্পে সাহায্য পাবেন গোটা দেশের প্রায় ১৯ কোটি ২০ লক্ষ মানুষ। এমনকি কোভিড প্যানডেমিকেও এই প্রকল্পের কাজকর্ম সমান ভাবে এগিয়ে নিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর তারা। কেন্দ্র সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী ইতিমধ্যেই প্রায় সাড়ে সাত কোটি মানুষের ঘরে ঘরে ট্যাপের বিশুদ্ধ জল পৌঁছে দিতে পেরেছে তারা। এই মহামারী পরিস্থিতিতেও জল পৌঁছে গিয়েছে প্রায় ৪ কোটি ২৫ লক্ষ মানুষের ঘরে। তবে কেন্দ্রের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বেশ কিছুটা পিছিয়ে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। আর সেই কারণেই কেন্দ্রের পক্ষ থেকে সমস্ত রকম সাহায্য পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে রাজ্যকে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গজেন্দ্র সিং সেখয়াত ইতিমধ্যেই রাজ্যের জন্য প্রায় সাত হাজার কোটি টাকার সাহায্য প্রদান করেছেন। কেন্দ্রের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, জল জীবন প্রকল্পের বাস্তবায়নে যে গতির প্রয়োজন তা অনেকটাই ধীর পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে। প্রায় ১ কোটি ৬৩ লক্ষ ২৫ হাজার পরিবারের ঘরে বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার কথা ছিল রাজ্যের। কিন্তু সেখানে এখনো পর্যন্ত মাত্র ১৪ লক্ষ্য পরিবারের ঘরে ট্যাপের বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দিতে পেরেছে রাজ্য। বিশেষ করে শেষ ২১ মাসে এই কাজে অগ্রগতি হয়েছে মাত্র ১%। কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, প্রায় ৪১৩৫৭ টি গ্রাম রয়েছে পশ্চিমবঙ্গে, যেখানে জল পৌঁছে দেবার জন্য অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছিল কেন্দ্রের তরফে। কিন্তু মাত্র ১২ লক্ষ ৪৮ হাজার মানুষের ঘরে বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দিতে পেরেছে রাজ্য। ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে রাজ্যের সঙ্গে আলোচনা করতে বসেছে জল শক্তি মন্ত্রক। আগামী দিনের পরিকল্পনাও ধার্য করা হয়েছে। রাজ্য সরকারকে প্রকল্পের গতি আরো বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে তারা।

কেন্দ্র সরকার জানিয়েছে যে, ৭৫১৩৭ টি স্কুল এবং ৯৬ হাজারেরও বেশি অঙ্গনারী কেন্দ্রে বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাস ছিল রাজ্যের। সেক্ষেত্রে যথেষ্ট পিছিয়ে গিয়েছে রাজ্য সরকার। এখনো পর্যন্ত মাত্র ১০০৪৬টি স্কুল এবং ৬৪৩০ অঙ্গনারী কেন্দ্রেই বিশুদ্ধ পানীয় জলের পরিষেবা পৌঁছেছে। এই প্রকল্পে গৃহস্থলীর জন্য প্রত্যেক ব্যক্তি ৮ থেকে ১০লিটার করে বিশুদ্ধ পানীয় জল পাবেন বিনামূল্যে। কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে প্রায় বারোশোর বেশি গ্রাম রয়েছে এবং সেই সমস্ত এলাকায় জলে আর্সেনিকের পরিমাণ যথেষ্ট বেশি। আর সেই কারণেই প্রত্যেক মানুষের ঘরে বিশুদ্ধ পানীয় জল পৌঁছে দিতে চায় তারা।

Back to top button