শুভেন্দুর সঙ্গে সাক্ষাতের পরের দিনই আচমকাই দিল্লী সফর রাজ্যপালের, ঘনাচ্ছে রহস্য

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোমবার বিকেলে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী বিধানসভা থেকে পায়ে হেঁটে ৫০ জন বিজেপি বিধায়ককে রাজভবনে নিয়ে গিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে চা-চক্রে যোগ দেওয়ার সাথে সাথে বর্তমান আইনশৃঙ্খলা এবং দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকর করা, বিরোধীদলের কর্মী-সমর্থকদের উপর অমানবিয় অত্যাচার হচ্ছে এই নিয়ে অভিযোগ জানান।

তাদের অভিযোগ শোনার পর তাঁদের নিয়েই সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় রাজ্য সরকারকে আক্রমণ করেন। তিনি সাংবাদিকদের সামনে বলেন, “রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসায় যেসব জায়গায় অত্যাচার চলেছে, মুখ্যমন্ত্রী সেখানে কেন যাননি?” দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকর করার ইঙ্গিত দিয়ে তিনি রাজ্য সরকারকে বলেন, ‘রাজ্যে গণতন্ত্র নিঃশ্বাস নিতে পারছে না।”

সোমবার বিজেপির প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের পর হঠাৎই তিনি চারদিনের জন্য দিল্লী যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এইনিয়ে যথেষ্ট জল্পনাবেড়েছে। তবে ওয়াকিবহাল মহল একে বেশ গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত বলে দাবি করেছেন।

এর আগে তিনি মেদিনীপুর সফর থেকে নিজের সাংবিধানিক অধিকার প্রয়োগের চেষ্টা করেছিলেন। এখন রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে তিনি প্রতিবাদ জানিয়েছন। সোমবার তিনি রাজ্য সরকারের উদ্দেশ্যে বলেছেন, মুখ্যমন্ত্রী যেদিন শপথ নিয়েছিলেন, “সেদিনই আমি রাজ্যে আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতির দিকে ওনাকে নজর দিতে বলেছিলাম। কিন্তু উনি তা করেন নি।”

Back to top button