তৃণমূলের ঘর ভাঙল বিজেপি, শতাধিক কর্মী সমর্থক যোগ দিল গেরুয়া শিবিরে

নিজস্ব প্রতিবেদন:  একুশের নির্বাচনের আগে অনেক তৃণমূল নেতা ও কর্মীরা বিজেপির স্বপ্নকে সত্যি করতে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেছিল। কিন্তু ভোটের ফল প্রকাশের পর দেখা গেল ২০০ এর বেশি আসন নিয়ে আবারও ক্ষমতায় আসলো তৃণমূল কংগ্রেস। একক সংখ্যাগরিষ্ঠতায় ক্ষমতায় এসে বিজেপির স্বপ্নকে ভেঙে চুরমার করে দিল।

বঙ্গ রাজনীতিতে কিছুটা উল্টো ঘটনা দেখা গেল ভোটের ফল প্রকাশের পর। যেসব নেতারা বিজেপির স্বপ্নকে সত্যি করতে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে ছুটে এসেছিল, তারাই আবার তোড়জোড় শুরু করেছে তৃণমূলে ফিরে যাওয়ার। ইতিমধ্যেই কেউ কেউ ফিরে গিয়েছেন, কেউবা নাম লিখিয়েছেন ফিরে যাওয়ার খাতায়।

এবারের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপির হয়ে জয় লাভ করার পরেও প্রায় সাড়ে তিন বছর পর নিজের পুরানো দলে ফিরলেন মুকুল রায়। তিনি তৃণমূলে ফিরে গিয়েছেন নিজের জয়লাভ করা বিধায়ক পদ না ছেড়েই। আরও অনেকেই মুকুল রায়ের পিছন পিছন লাইন লাগিয়েছেন।

এর মধ্যে কিছুটা ভিন্ন চিত্র দেখা গেল রায়গঞ্জে। রাজ্যে একদিকে যখন ভাঙ্গন ধরেছে গেরুয়া শিবিরে, সেই একই সময়ে দাঁড়িয়ে রায়গঞ্জের কয়েকশো মানুষ তৃণমূল ছেড়ে চলে যাচ্ছেন বিজেপিতে। শনিবার রায়গঞ্জ এলাকার কয়েকশো মানুষ রায়গঞ্জের বিধায়ক শ্রী কৃষ্ণ কল্যাণী মহাশয়ের নেতৃত্বে বিজেপিতে যোগদান করেছেন। স্থানীয় মানুষের দাবী তারা বিজেপিতে যোগদান করেছেন মোদিজীর হাতকে শক্ত করতে এবং রাজ্যের তৃণমূলের অপশাসন কে দূর করতে।

Back to top button