ট্রেন চালু নিয়ে এবার বড় সুখবর, সোমবার থেকে ১৫০ টি ট্রেন দিয়ে শুরু!

নিজস্ব প্রতিবেদনদেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সর্বপ্রথম ট্রেন পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছিল। ভিড় এড়ানোর জন্য পূর্ব রেলের পক্ষ থেকে ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে লোকাল ট্রেন পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে যারা লোকাল ট্রেনের সাথে যাদের জীবন নির্বাহ রয়েছে তাদের মাথায় তখন একটাই চিন্তা ছিল কিভাবে সংসার দুমুঠো ভাত জোগাড় করবে। দেখতে দেখতে একটা বছর কেটে গেল, পরের বছর লকডাউনে আবারও প্রথম বন্ধ হল লোকাল ট্রেন।

বিভিন্ন সরকারি স্টাফদের কি অফিসে যাওয়ার জন্য স্টাফ রেল চালু করলেও সাধারণ মানুষ যারা বেসরকারি সংস্থা তে কাজ করে তাদের জন্য কোনো ব্যাবস্থাই করেনি সরকার। ফলে যাত্রীরা ক্ষুব্ধ হয়ে শিয়ালদা এবং হাওড়া ডিভিশনে বিভিন্ন স্টেশনে ভাঙচুর পুলিশের সাথে ধ্বস্তাধ্বস্তি করে। তাই সাধারণ যাত্রীদের কথা ভেবে পূর্ব রেলওয়ের কর্মকর্তারা লোকাল ট্রেন চালানোর জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে অনুমতি চেয়েছিলেন কিন্তু রাজ্য সরকার এখনো পর্যন্ত অনুমতি দেয়নি ।

যার ফলে ভারতীয় পূর্ব রেলওয়কে প্রতিনিয়ত যাত্রীদের বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে। কিন্তু এবার ভারতীয় পূর্ব রেলওয়ে এর বিকল্প উপায় বের করল। যেহেতু এই পরিস্থিতিতে লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু করা সম্ভব নয়, তাই শিয়ালদা এবং হাওড়া ডিভিশনে সোমবার থেকে স্টাফ ট্রেনের সংখ্যা বাড়ানো হল। পূর্ব রেলওয়ে তরফ থেকে জানানো হয়েছে, হাওড়া এবং শিয়ালদা দুটি শাখাতেই স্টাফ স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যা বৃ’দ্ধি করা হবে।

জানা গিয়েছে, হাওড়া শাখায় ৫০ টি এবং শিয়ালদা শাখায় ১০০ টি স্পেশাল ট্রেন বৃদ্ধি করা হবে। অর্থাৎ হাওড়া এবং শিয়ালদাহ শাখা মিলিয়ে মোট ১৫০ টি ট্রেন বাড়ানো হবে। এখন হাওড়া শাখায় স্টাফ স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ২০৪ এবং শিয়ালদাহ শাখায় ৩৫৯। এবং এই খবর সামনে আসার পর অনেকেই মনে করছেন যে, এবার ভারতীয় রেলের চাপ অনেকটাই কমে যাবে।

Back to top button