শুভেন্দু, সৌগতদের বিরুদ্ধে নারদ মামলা এগোতে লোকসভার স্পিকারকে চিঠি দিল সিবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদননারদ মামলায় অভিযুক্ত তৎকালীন সাংসদদের বিরুদ্ধেও এ বার মামলা এগিয়ে নিয়ে যেতে লোকসভার স্পিকারের অনুমতির অপেক্ষায় আছে সিবিআই আধিকারিকরা।বিভিন্ন সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম সিবিআই সূত্রকে উধৃত করে এই খবর দিয়েছে। নতুন করে আবার মামলা শুরু হবে শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধেও। রাজ্যের চার মন্ত্রী গ্রেফতার হওয়ার পর আর দুই মন্ত্রী ছাড়া পেলো কেন সে প্রশ্ন করছেন অন্যান্য মন্ত্রীরা। শুভেন্দু লোকসভার সদস্য ছিলেন আর মুকুল ছিলেন রাজ্যসভায়।ফলে এঁদের বিরুদ্ধে কোনো একশন নিতে গেলে লোকসভার স্পিকার এবং রাজ্যসভার চেয়ারম্যানের অনুমতি লাগবে।

এই মামলায় তৎকালীন অভিযুক্তদের মধ্যে শুভেন্দু ছাড়াও ছিলেন তৃণমূলের সৌগত রায়, কাকলি ঘোষ দস্তিদার, প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অপরূপা পোদ্দার। চারজন এখনও লোকসভার সদস্য আছেন। কিন্তু কোনও আইনসভার সদস্যকে গ্রেফতার করার আগে সংশ্লিষ্ট সভার স্পিকারকে জানানোর প্রয়োজন পড়ে না বলেই ভারত সরকারের ‘ইন্ডিয়া কোড’-এ বলা রয়েছে। সেখানে বলা আছে যে, একমাত্র সিভিল ও কটূক্তিজনিত মামলায় স্পিকারকে জানানো যেতে পারে। তা-ও যদি সেইসময় আইনসভার অধিবেশন চালু থাকে তবে। তবে সেটি কোনো বাধ্যতামূলক নিয়ম নয়। ফৌজদারি মামলার ক্ষেত্রে এটার আরো প্রয়োজন পড়ে না। ফলে সিবিআই সৌগত-শুভেন্দুদের গ্রেফতারের জন্য স্পিকারকে যদিও চিঠি দিয়ে থাকে, সেটিও ‘ঔপচারিকতা’ বলেই ধরা হবে বলে আধিকারিকদের মত।

সিবিআই আধিকারিকরা ওই পাঁচ জনকে গ্রেফতারের জন্য স্পিকার ওম বিড়লা কে চিঠি দিয়েছে । এর আগেও এই সংক্রান্ত বিষয়ে অনুমতি চাওয়ার জন্য সিবিআই তিনবার সংসদের দুই কক্ষের স্পিকার এবং চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়েছিল বলে জানা যায়। তবে রাজ্যসভার চেয়ারম্যানকে নতুন করে আর কোনও চিঠি দেওয়া হয়েছে কি না, তা এখনও জানা যায়নি।।

Back to top button