নিয়ম ভেঙে বোনপোকে ভাত খাওয়ালেন শ্রুতি, সাহসী পদক্ষেপে প্রশংসা অনুরাগীদের

বংট্রেন্ডি অনলাইন ডেস্ক: জি বাংলার বিখ্যাত ধারাবাহিক ‘ত্রিনয়নী’-এর অভিনেত্রী শ্রুতি দাসকে অনেকেই চিনি। এমনিতেই শ্রুতি প্রতিবাদী, সাহসী, এবং অভিনয়ের দিক থেকে দক্ষ তাই তিনি বছরের শুরুতে করলেন এক বড় নিয়ম ভঙ্গ। ‘ত্রিনয়নী’- এর মধ্যে দিয়ে তার অভিনয় জীবনে পদার্পণ। পরিচালক স্বর্নেন্দু সমাদ্দারের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। এরপর গায়ের রং নিয়ে বহু কটাক্ষের মুখোমুখি হন। তিনি তো চুপ করে থাকার মানুষ নন তিনি এর যোগ্য জবাব একাই দিয়ে এসেছেন। এবারে আরো এক সাহসিকতার ছাপ রাখলেন শ্রুতি তার বাস্তব জীবনে।

এক শিশুর জন্মের ছয় মাস পর, তার মুখে প্রথম ভাত তুলে দেয় তার মামা বা দাদু, যাকে বলে ‘মামাভাত’। আর এই প্রথা চলে আসছে প্রথম থেকে। তবে এবারে, এই নিয়মের ছন্দ পতন করলেন অভিনেত্রী শ্রুতি দাস। নিয়মের বাইরে গিয়ে উৎসবে মাতলেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Shruti Das (@shrutidas_real)

তিনি তার কোলে ছোট্ট বোনপোকে মুখে ভাত তুলে দেওয়া অবস্থায় সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু বিশেষ ছবি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘নিজের বোনপোকে মিমিভাত খাওয়ানোর মজাই আলাদা। সেইসঙ্গে সাফল্যও। প্রথা ভাঙার আলাদাই আনন্দ। সবসময় কেই বা মামাভাত হবে? মা মাসিরাই তো খাওয়ায় রোজ বাচ্চাদের। বাবা বা মেসোমশাইরা কদাচিৎ।’

অভিনেত্রী শ্রুতি দাসের সেদিন দিদির ছেলের অন্নপ্রাশন ছিল। শ্রুতি সেদিন মাসি হিসেবে তার ছোট্ট বোনপোর গালে প্রথম ভাত তুলে দেন। অর্থাৎ, এবারে আর হলনা মামা ভাত, হয়ে গেলো মাসি ভাত বা শ্রুতির কথায় মিমি ভাত। অভিনেত্রীর এমন কাজে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকেই তাকে বিস্তর প্রশংসা করেছেন, বাহবা জানিয়েছেন।

Back to top button