১৭ দিনের শিশুকে নতুন জীবন দিলেন রাজ, পরিবারের কাছে ত্রাতা হয়ে এলেন বিধায়ক

নিজস্ব প্রতিবেদন: বারাকপুরের ২১এ নির্বাচিত নতুন বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী তার উদারতার প্রমান বহুবার দিয়েছেন।তিনি একজন প্রথম সারির পরিচালক।নির্বাচনের আগে প্রচার থেকে শুরু করে মানুষের কাছে গিয়ে খাদ্য তাদের হাতে তুলে দিয়েছেন তিনি।তার এই মানবিকতা মন কেড়েছে সাধারণ মানুষের।

মাত্র ১২ দিনের একটি শিশু অসুস্থ ছিল। বাচ্চাটি জন্মের পর থেকেই হৃদরোগে আক্রান্ত ছিল।তার হৃদয় বাম দিকে থাকার বদলে দান দিকে ছিল আর যার ফলে তার শ্বাস কষ্ট হচ্ছিল। তার পরিবার ব্যারাকপুর ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। ওই শিশুটিকে নিয়ে তার পরিবার একের পর এক হাসপাতালে গিয়েছেন। কিন্তু শিশুটিকে কোনো হাসপাতালে ভর্তি করতে পারেননি।

হাসপাতালের কাছে এক জায়গায় তাকে অক্সিজেন দেওয়ার ব্যাবস্থা করা হয় কোনোরকমে।এই কথা কাউন্সিলারের মাধ্যমে রাজের কানে আসে, এবং তিনি নিজে হাসপাতাল খোঁজে শিশুটির জন্য।অবশেষে পরদিন সকালে হাসপাতালের খোঁজ মেলে এবং শিশুটিকে ভর্তি করা হয়। শিশুটির চিকিৎসার পুরো দায়িত্ব রাজ নিজে নেন।

এই বিষয়ে রাজ বলেন যে ‘আমার কাছে একদিন রাতে এই ফোন আসে, শিশুটির কথা শুনেই মনে হয় খুব তাড়াতাড়ি চিকিৎসা শুরু হওয়া প্রয়োজন। এর পরই আমি স্বাস্থ্য ভবনের সহযোগিতায় ওকে ভর্তি করি শহরের এক হাসপাতালে। এখন সে সম্পূর্ণ সুস্থ। তাঁর মা-বাবা আমার কাছে নিয়ে এসেছিলেন শিশুকে, ওকে হাসতে দেখে খুব ভাল লেগেছে, ওটাই আমার প্রাপ্তি।’

কিছু দিন আগে রাজ সোশ্যাল মিডিয়াতে শিশুটিকে সাহায্য করার জন্য একটি পোস্ট করেন। তাতে ট্রোলের শিকার হতে হয়।কিন্তু শিশু টির হাসি সকল জবাব দিলো।রাজ বলেন তিনি মানুষের সাহায্যের জন্য রাজনীতিতে এসেছেন তাই সবটুকু দিয়ে তিনি যথাসাধ্য চেষ্টা করবেন মানুষের পাশে থাকার।।

Back to top button