“রাজনৈতিক নেতাদের উপর সাধারণ মানুষের আস্থা উঠে যাবে”- মুকুল রায়কে আক্রমন হিরণের

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদানের পর রাজনৈতিক মহলে এ নিয়ে ব্যাপক চর্চা শুরু হয়েছে। উল্লেখ্য, বিজেপতে যাওয়ার পর মুকুল রায় মন্তব্য করেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে সরিয়ে পাপের প্রাশ্চিত্ত করবেন। শুধু তাই নয়, মমতা ব্যানার্জীকে তিনি অশিক্ষিত মুখ্যমন্ত্রী বলেও কটাক্ষ করেছিলেন।

মুকুল রায়ের তৃণমূলে যোগদানের প্রসঙ্গটিতে বিজেপি বিধায়ক হিরণ চ্যাটার্জী মুখর হয়েছেন। হিরণ চ্যাটার্জী মুকুল রায়ের এই সিদ্ধান্তকে ধান্দাবাজি রাজনীতি বলে কটাক্ষ করেছেন। হিরণ এও মন্তব্য করেন, মুকুল রায়ের এই কান্ডের জন্য রাজনৈতিক নেতাদের উপর থেকে জনগণের আস্থা হারিয়ে যাবে।

বিজেপি বিধায়ক এক টুইট করে লিখেছেন, “এবার ধান্দাবাজি রাজনীতি বন্ধ হোক। পশ্চিমবঙ্গ যে নোংরা রাজনীতির খেলা দেখছে তাতে রাজনৈতিক নেতাদের উপর সাধারণ মানুষের আস্থা উঠে যাবে। আয়া রাম গয়া রাম- পশ্চিমবঙ্গের সংস্কৃতি নয়।” প্রসঙ্গত, মুকুল রায়ের এই কান্ড করার দরুন অনেকে উনাকে তৃণমূলের গুপ্তচর হয়ে কাজ করার তকমা লাগিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে অভিযোগ তুলেছেন, মুকুল রায়ের বিজেপিতে যাওয়াটা পূর্বপরিকল্পিত।

মুকুল রায়কে পার্টিতে ফিরিয়ে নেওয়ার মধ্যে দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেস ঘর ওয়াপসি কর্মসূচি চালু করেছেন বলে অনেকে কটাক্ষ করেছেন। আসলে মুকুল রায়ের পর এবার রাজীব ব্যানার্জী তৃণমূলে ফিরতে পারেন বলে চর্চা তেজ হয়েছে। আজ রাজীব ব্যানার্জী তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষের বাড়িতে পৌঁছেছেন।

Back to top button