ইয়াসে বিধ্বস্ত হয়েও কোভিড আক্রান্ত রাজ্যে অক্সিজেন সরবরাহ করছে ওড়িশা

নিজস্ব প্রতিবেদনঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ল্যান্ডফল হওয়ার কথা ছিল প্রথমে বাংলায়, কিন্তু পরে তা দিক পরিবর্তন করে ওড়িশার উপকূলে আছড়ে পড়ে। ইয়াসের কারণে বাংলায় যা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, তাঁর থেকে অনেক বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে নবীন পট্টনায়কের রাজ্যে। ওড়িশা সরকার ইয়াস মোকাবিলায় আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়েছিল। বহু মানুষকে উপকূলবর্তী এলাকা থেকে সরিয়ে নিয়ে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। ওড়িশার বালাসোরের উপর দিয়ে যাওয়ার সময় তাণ্ডব করে ইয়াস।

যখন ওড়িশার পাশে প্রতিবেশী রাজ্যগুলোর দাঁড়ানো দরকার, তখন ওড়িশা নিজে ইয়াসের মোকাবিলার পাশাপাশি কোভিড আক্রান্ত রাজ্যগুলিতে অক্সিজেন সাপ্লাই করে চলেছে। ওড়িশা পুলিশের এডিজি জশবন্ত কুমার জেঠওয়া জানিয়েছেন, “অক্সিজেন ট্যাংকারগুলিকে সুরক্ষিত এবং একজোট করার পাশাপাশি হাসপাতালগুলিতে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিত করা হয়েছে।” এছাড়াও তিনি জানান, অক্সিজেন উৎপাদক কেন্দ্র, অক্সিজেন ট্যাংকারের চালক এবং অন্যান্য কর্মীদের সুরক্ষিত রাখার পাশাপাশি অক্সিজেন সরবরাহ সহজতর করার লক্ষ্যে কাজ চলছে।

একেতে করোনার ফলে নাজেহাল অবস্থা, তার ওপর আবার ইয়াস দুটোর মাঝখানে পরে যেন ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে ওড়িশা সরকার এবং সেখানকার জনগণ। তবুও মানবিকতার খাতিরে এই বিপদের মধ্যেও করোনা আক্রান্ত বিভিন্ন রাজ্যে জীবনদায়ী অক্সিজেন পাঠিয়ে যাচ্ছে ওড়িশা সরকার। সূত্রের খবর থেকে জানা যাচ্ছে, গত একমাসে গ্রিন করিডরের মাধ্যমে ওড়িশা পুলিশ ২২ হাজার মেট্রিক টন অক্সিজেন পাঠিয়েছে বিভিন্ন রাজ্যে। ওড়িশা সরকারের এই মানবিক পদক্ষেপের প্রশংসা হচ্ছে গোটা দেশ জুড়ে।

Back to top button