ইংরেজিতে দুর্বল বলে একসময় কলেজে সবাই তাকে নিয়ে মজা করত, কঠোর পরিশ্রমে আজ তিনি IAS অফিসার

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইউপিএসসি পরীক্ষা হলো দেশের অন্যতম কঠিন পরীক্ষা গুলির মধ্যে একটি। কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে এই পরীক্ষায় পাস করে দেখালেন প্রত্যন্ত গ্রামের এক মেয়ে। তিনি হলেন আইএএস সুরভি গৌতম। কঠোর পরিশ্রমের মাধ্যমে তিনি তাঁর লক্ষ্যে পৌঁছেছেন। মধ্যপ্রদেশের সাতনা জেলার আমদারা গ্রামে জন্ম এই সুরভি গৌতমের। যার গল্প অনুপ্রাণিত করবে দেশের লক্ষাধিক মেয়েদেরকে। অল ইন্ডিয়া স্তরে ২০১৬ সালে ইন্ডিয়ান সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় ৫০ তম স্থান অধিকার করেন।

সূর্ভীর বাবা ছিলেন আদালতের একজন আইনজীবী এবং মা ছিলেন হাইস্কুলের শিক্ষক। তিনি যে স্কুলে পড়াশোনা করতেন সেই স্কুলে পড়াশোনার প্রয়োজনীয় সরঞ্জামের যোগান ছিল না। তা সত্ত্বেও তিনি মাধ্যমিকে ৯৩.৩% নম্বর পান। তিনি অংকে ১০০ তে ১০০ পান। পরে রাষ্ট্রীয় প্রকৌশল প্রবেশিকা পাস করেন ভালো নম্বর নিয়ে। এরপর তাঁর জীবনে তুমুল পরিবর্তন আসে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে ভর্তি হয়ে।

এখানকার বেশিরভাগ ছাত্র ছাত্রী ইংরেজিতে কথা বলতো। তারা ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলে পড়াশোনা করত বলে তাদের ইংরেজি বলতে কোন সমস্যা হতো না। কিন্তু ইংরেজিতে কথা বলতে সমস্যা হতো হিন্দি মিডিয়ামে পড়াশোনা করে বড় হওয়া সুরভির। প্রতিদিন ১০ টা করে শব্দ মুখস্ত করে দেওয়ালে লিখে রাখতেন ইংরেজি শেখার জন্য।

এরপর তিনি সেমিস্টার টপ করেন। এরপর অনেক জায়গায় পরীক্ষা দিয়ে সফলভাবে পাস করলেও, তাঁর স্বপ্ন ছিল আইএএস হওয়ার। অবশেষে ২০১৬ সালে আইএএস পরীক্ষা দিয়ে তিনি আইএএস অফিসার হন।

Back to top button