‘ম্যায় দুনিয়া ভুলা দুঙ্গা’, কুমার শানুর গানে লিপ মেলালো কিলি পল, যুবকের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটদুনিয়া

বংট্রেন্ডি অনলাইন ডেস্ক: সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কোন ভিডিও ভাইরাল হতে সময় নেয় না। আর বর্তমান যুগটাই ট্রেন্ডের যুগ। বর্তমান যুগে ট্রেন্ডে রয়েছে শর্ট ভিডিও বানানো। ফেসবুক ইনস্টাগ্রাম ইউটিউব এর মত জনপ্রিয় সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপে শর্ট ভিডিও বানানোর ফিচার চলে আসছে। আমাদের দেশে বিভিন্ন হিন্দি বা আঞ্চলিক গানের লিপসিং করে অনেক কন্টেন্ট ক্রিয়েটর জনপ্রিয়তা পেয়েছেন।

তবে সম্প্রতি হিন্দি গান এবং বলিউড এর প্রেম ছড়িয়ে গেছে আন্তর্জাতিক মহলে। গত কয়েকদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় রয়েছেন তানজানিয়ার যুবক কিলি পল। বেশিরভাগ সময়ে নিজের বোন নিমার সঙ্গে বলি স্টাইলে ভিডিও বানিয়ে ভারতীয়দের অগাধ ভালোবাসা পেয়েছেন তিনি। কোথায় রয়েছে “সংগীতের কোন সীমা নেই ভাষা ধর্ম সবকিছুর ঊর্ধ্বে সংগীত।”

এই কথা যে একশভাগ সত্য তার বড় প্রমাণ তানজানিয়ার ওই যুবক। তিনি হিন্দি ভাষা না বুঝেও বলি জগতের প্রেমে পড়েছেন। 21 শে নভেম্বর প্রথম কিলির ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল ভারতে। ওই ভিডিওটিতে শেরশাহ ছবির রতেন লম্বিয়া গানে লিভ মিলিয়েছিলেন কিলি পল এবং তার বোন নিমা পল। আর তারপর থেকে তাকে কখনো পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি।

একের পর এক হিন্দি গানে লিপ মিলিয়ে গোটা ভারতবর্ষের মন জয় করে নিয়েছেন এই যুবক। ইনস্টাগ্রাম খুললেই এতদিন পর্যন্ত দেখা যেত কখনো অরিজিৎ সিং তো আবার কখনো জুবিন নটিয়াল এর গান ভাইরাল হয়েছেন। তবে কিলি একটি নতুন ভিডিও পোস্ট করেছে যাতে দেখা যাচ্ছে ওই তানজানিয়ার যুবক কুমার শানুর জনপ্রিয় গান “মে দুনিয়া ভুলা দুঙ্গা” গানে লিপ মিলিয়েছে।

View this post on Instagram

A post shared by Kili Paul (@kili_paul)

আর সেইসাথে ক্যাপশন দিয়ে লিখেছেন “ভারতের পুরনো দিনের গান খাঁটি সোনা। ক্লাসিকাল মিউজিক সত্যিই সুন্দর আশা করি আপনাদের সবার পছন্দ হবে।” কিলি পল এর ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় আসতেই তার চোখের পলকে ভাইরাল হয়ে যায়। ইতিমধ্যেই ভিডিওটি আগন্তি মানুষ দেখে ফেলেছেন এবং ভিডিওটিতে লাইক পড়েছে ১.৩ মিলিয়ন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য ভারতে কিলির ভিডিও বারংবার ভাইরাল হওয়ার কারণে একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন ভারতের লোকেরা আমাদের ভালোবাসা নিচ্ছে তার জন্য আমরা তাদের কাছে কৃতজ্ঞ। সংগীতের কোন সীমানা নেই। ভারতীয়রা চায় আমরা আরো ভিডিও করি। আমরা তাই করব। সঙ্গীত মানুষকে একে অপরের কাছে নিয়ে আসে। কিলির হিন্দি গানের প্রতি এমন ভালোবাসা দেখে প্রশংসা করেছেন অনেক ভারতীয়।

Back to top button