মুকুল ফিরতেই দেখা গেলো পুরোনো আড্ডা! আলুভাজা-চিপস দিয়ে মুড়ি মাখলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: মুকুল রায় ও তার ছেলে শুভ্রাংশু রায় দীর্ঘ ৪ বছর পর তৃণমূল ভবনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দোপাধ্যায় ও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করলেন। গত বছর মুকুল রায় তৃণমূলে ফিরতে চেয়েছিলেন কিন্তু তা হয়ে ওঠেনি। এবছরে কৃষ্ণনগর উত্তরের বিজেপি প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে দাড়িয়ে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী কৌশানি মুখার্জি হারিয়ে জয়ী হন তিনি।

বিজেপি নেতা সৌমিত্র খাঁ মুকুল রায়কে বিজেপিতে যোগ দিতে দেখে টুইটারে তাকে ট্যাগ করে মন্তব্য করেছেন,’বাংলায় মীরজাফরের জন্য আজ বিজেপির এই অবস্থা হয়েছে। উনারা তাড়াতাড়ি চলে গেলে দলের পক্ষে মঙ্গল। আমরা যেমন বিজেপির আদর্শ সৈনিক হয়েছিলাম ভবিষ্যতেও ঠিক সেভাবেই থাকবো। কোন বেঈমান গাদ্দার আমাদের এই লড়াই করার মানসিকতাটাকে কখনোই ভেঙে দিতে পারবে না।’

মুকুল রায় ও তার ছেলে শুভ্রাংশু রায় তৃনমূল ভবনে এসে মুখ্যমন্ত্রীর পা ছুঁয়ে প্রণাম করলে তিনি জানান সে যেন কাঁচরাপাড়া ছেড়ে আবার সল্টলেকের বাড়িতে থাকতে শুরু করে। মুকুল রায়কে বিজেপি ছাড়ার কারণ জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান যে পরে তিনি সবটা লিখিত ভাবে প্রকাশ করবেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,’মুকুল আমাদের পরিবারের ছেলে। কেন্দ্রীয় সরকার ওকে ধমক দিয়ে এজেন্সি দ্বারা ভয় দেখিয়ে ওর ওপর অত্যাচার করেছে। যার জন্য কখনোই মানসিক শান্তি পায়নি। কিন্তু এখানে এসে সে একটি বিরাট মানসিক শান্তি পেয়েছে। ওর শরীরটাও বেশ খারাপ হয়েছে আগের থেকে। একটা কথাই বলবো বিজেপি করা যায় না। বিজিবিতে যারা রয়েছে তারা মনুষ্যত্ব নিয়ে বাঁচতে পারেন না।’

পুরানো প্রার্থীকে আবার দলে ফিরে পেয়ে তাদেরকে নিয়ে আড্ডা দিতে বসলেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই আড্ডায় তিনি আলু ভাজা এবং চিপস দিয়ে মুড়ি মেখে খাইয়েছেন সকলকে। সেখানে ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত বক্সী, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মুকুল রায়।

Back to top button