কলকাতা সহ এই ৭ টি জেলায় কিছুক্ষণের মধ্যেই হতে চলেছে মুষলধারে বৃষ্টি, সর্তকতা জারি আবহাওয়া দপ্তরের

নিজস্ব প্রতিবেদনকলকাতা শহরের বুকে যে পরিমান গরম পড়ছে কলকাতাবাসী মনে একটাই প্রশ্ন, বাংলায় বর্ষা কবে প্রবেশ করবে? যদিও আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর কিছুদিন আগেই তার উত্তর স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছিল। আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, কেরলে বর্ষা প্রবেশ করলেও বাংলায় পাকাপাকি ভাবে বর্ষা প্রবেশ করেনি। একটি নিম্নচাপের হাত ধরে বাংলায় বর্ষা প্রবেশ করবে।

‘ইয়াস’-এর রেস কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই বঙ্গোপসাগরে ফের নিম্নচাপ সৃষ্টি হতে চলেছে। উপকূলবর্তী অঞ্চলগুলিতে ভারি থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে এই নিম্নচাপের জেরে। কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। নবান্নের তরফ থেকে সর্তকতা জারি করা হয়েছে এবং প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে বিভিন্ন জেলার শাসকদের।

আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে জানানো হয়েছিল ১১ ই জুন বাংলায় বর্ষা প্রবেশ করবে। কিন্তু তার পূর্বে যে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের ঘোষণা করা হয়েছিল ইতিমধ্যেই কলকাতা সহ আশেপাশের জেলাগুলিতে শুরু হয়ে গিয়েছে। এই বৃষ্টিপাতের দাবর চলবে বৃহস্পতিবার থেকে রবিবার পর্যন্ত এবং এর মাধ্যমেই প্রবেশ করবে বাংলায়।

গত কয়েকদিনে অত্যধিক গরম এর ফলে মানুষ চাইছিল বিকালের দিকে যাতে একটু বৃষ্টি হয়। সেইমতো বিকালের দিকে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির খবর পাওয়া গিয়েছে কলকাতার আশেপাশে দক্ষিণবঙ্গের কিছু জেলাগুলিতে। তবে গত দুইদিনে গোটা রাজ্যে বজ্রপাতের ফলে মৃত্যু হয়েছে মোট ২৬ জনের। এই ঘটনা সাধারণ মানুষের মনে আশঙ্কার সৃষ্টি করেছে।

Back to top button