টানা ৪ দিন বৃষ্টিতে ভিজবে বাংলা, ভরা কোটালে বান আসার পূর্বাভাস আবহাওয়া দফতরের

নিজস্ব প্রতিবেদন: ইয়াসের ক্ষতি সামলে উঠতে না উঠতেই, আবারও প্রাকৃতিক দুর্যোগের পূর্বাভাস দিল আবহাওয়া দফতর। বাংলায় বর্ষা ঢোকার সময় নিরধারণ করা হয়েছে ১১ ই জুন। কিন্তু তার আগেই বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের কারণে দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টি হবে ১০ ই জুন থেকে ১৪ ই জুন। এক নাগাড়ে বৃষ্টির কারণে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বাড়বে জোয়ারের জলস্ফীতিও।

ইতিমধ্যেই সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি উপকূলবর্তী এলাকায় যুদ্ধকালীন তৎপরতায় নদী ও সমুদ্রবাঁধ মেরামতির কাজ জারী রাখতে বলা হয়েছে। সমুদ্র থেকে মৎস্যজীবীদের ফিরে আসতে বলা ছাড়াও উপকূলবর্তী এলাকার বাসিন্দাদের অন্যত্র সরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এখানেই শেষ নয়, প্রকৃতি যেন এবারে একটু বেশিই ক্রুদ্ধ রয়েছে। যার জন্য ইয়াসের পর আবারও এক প্রবল জলোচ্ছ্বাসের আশঙ্কা করছে হাওয়া অফিস। ১১ এবং ২৬ শে জুন ভরা কোটাল থাকায়, সমুদ্রের জলস্তর বৃদ্ধি প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে। যার জেরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী বান আসার ভয়ে প্রশাসনকে আগে থাকতেই সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়েছে।

আজকের আবহাওয়া :

মঙ্গলবার কলকাতা শহরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে। সকালের দিকে এবং রাতের দিকে এলাকার কয়েকটি জায়গায় একবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

উত্তরবঙ্গের আবহাওয়া :

বাংলার উত্তরে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, সিকিম, আলিপুরদুয়ার, উত্তর দিনাজপুর, দক্ষিণ দিনাজপুর, কোচবিহার-এই সকল এলাকায় ভারী বৃষ্টিপাতের সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া :

দুই মেদিনীপুর, দুই ২৪ পরগণা, হাওড়া, কলকাতা, হুগলি, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া, দুই বর্ধামান, মুশির্দাবাদ, নদিয়ায় ভারী বৃষ্টিপাতের সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আগামীকালের আবহাওয়া :

আগামীকাল কলকাতা শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭ ডিগ্রির আশেপাশে থাকবে। সকালের দিকে এবং রাতের দিকে এলাকার কয়েকটি জায়গায় একবার বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে।

Back to top button