মদন মিত্রের ভোকাল কর্ডে টিউমার! চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী চলবে স্পিচ থেরাপি

নিজস্ব প্রতিবেদন: গত সোমবার থেকে বেশ উত্তপ্ত পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক মহল। গত সোমবার ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নারদা স্ট্রিং অপারেশন মামলায় গ্রেফতার করেছে সিবিআই।জেল থেকে বাড়ি ফিরলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তবে অসুস্থতার কারণে আপাতত হাসপাতালেই থাকতে হচ্ছে মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়, বিধায়ক মদন মিত্র এবং কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়কে

কামারহাটির তৃণমূল প্রার্থী মদন মিত্র গুরুতর অসুস্থ । সূত্রের খবর, শ্বাসকষ্ট জনিত সমস্যায় ভুগছেন তিনি। জানা গিয়েছে, মদন মিত্রের ভোকাল কর্ডে টিউমার ধরা পড়েছে। তিনি এই মুহূর্তে কলকাতার এসএসকেএম হাপসাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। শনিবার কামারহাটির বিধায়ককে দেখতে আসেন চিকিৎসকরা।

মদন মিত্রের বারবার গলা ভেঙে যাওয়ায়, কথা বলতে অসুবিধা হওয়ায়, তাঁর গলার পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষা করতেই তাঁর ভোকাল কর্ডে টিউমার ধরা পড়ে। এই কারণে মদন মিত্রকে কয়েকটি এক্সেসাইজ করার নির্দেশ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। পাশাপাশি চলবে স্পিচ থেরাপিও। এই টিউমারটি কতটা মারাত্মক তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়ক মদন মিত্রের জন্য, তা জানতে আরও বেশকিছু পরীক্ষার প্রয়োজন রয়েছে, এমনটাই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

Back to top button