করোনায় অসহায়দের সাহায্যের জন্য ১৪ মাসে ১৫ কোটি ফ্রি মিল বিতরণ করেছে ISKCON

নিজস্ব প্রতিবেদন: করোনাকালে সাহায্যের হাত বাড়ালো “ইন্টারন্যাশনাল সোসাইটি ফর কৃষ্ণা কনসাসনেস (ISKCON)” শ্রী চৈতন্য ভক্ত এই সংগঠনের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে যে, ১৪ মাসে ১৫ কোটি ফ্রি মিল দিয়েছে তাঁরা। আর আগামী দিনেও তাঁরা মানুষের পাশে এই ভাবে দাঁড়িয়ে এই কাজ করে যাবে।

ISKCON-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট রাধারমন দাস বলেন যে, ‘কোভিডের কারণে ভারতবাসীর অবস্থা খুবই শোচনীয় হয়ে পড়েছে। আর তার কারণেই তাঁরা ১৪ মাসে ১৫ কোটি ফ্রি মিল এর ব্যবস্থা করে। করোনার ত্রানের হিসেবেই তাঁরা এই মিল বিতরণ করেছিলো। ISKCON-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট রাধারমন দাস ANI কে জানান, “করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে অনেক পরিবারের অনেক সদস্য এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর এই দুঃসময়ে তাঁদের পক্ষে রান্না করা দুষ্কর ব্যাপার। এদের পাশে দাঁড়িয়ে, আমরা এদের খাবার পাঠিয়েছি।” তিনি আরো বলেন যে, এছাড়াও গর্ভবতী মহিলা আর প্রবীণ নাগরিকদের জন্য বিনামূল্যে খাবারের ব্যবস্থা করে দিয়েছি আমরা।

বর্তমানে কলকাতায় ISKCON-এর তিনটি শাখা রয়েছে। সেই শাখা গুলো থেকেই বিনামূল্যে খাবারের বন্দোবস্ত করা হয়েছে। রাধারমন দাস জানিয়েছেন, গুরুসদয় রোড, নিউটাউন আর দমদমের শাখাগুলিতে রান্নার বন্দোবস্ত রয়েছে। সেখানে থেকে প্রতিদিন ১৫ হাজার ফ্রি মিল দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের জন্য রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকাগুলোতে বিনামূল্যে খাবার বিতরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে ইসকনের পক্ষ থেকে।

বিপর্যয় কেটে গেলেই সাহায্যে নামবে ইসকন মন্দির কতৃপক্ষ। উপকূলবর্তী এলাকা গুলিতে সাহায্যের বাড়িয়ে দেওয়া হবে সংগঠনের পক্ষ থেকে। রাধারমন দাস জানান যে, ইসকনের প্রতিটি কেন্দ্রে প্রতিদিন ৬০ হাজার ফ্রি মিল তৈরি করার ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এরজন্য বিপুল পরিমাণে খাদ্যশস্য মজুত করা হয়েছে ইসকনের প্রতিটি কেন্দ্রে। ত্রাণের কাজে যাতে কোনও সমস্যা না হয়, সেটা দেখার নির্দেশ দিয়েছেন রাধারমন দাস।।

Back to top button