ট্রেন না চললে ভাত জুটছে না, লোকাল চালানোর দাবিতে তুমুল বিক্ষোভ সোনারপুরে

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোনারপুর স্টেশনে যাত্রী দের বিক্ষোভের কারণে ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত হলো। আজ সকাল থেকেই লোকাল ট্রেন চলাচল শুরু করার দাবিতে বিক্ষোভ দেখিয়ে ট্রেন অবরোধ করে কয়েকশো মানুষ।তাদের মধ্যে অধিকাংশ লোকজন শ্রমিক শ্রেণীর অন্তর্ভুক্ত মানুষ।

আজ সকালে স্টাফ ট্রেন গুলিতে উঠতে দেওয়া ও লোকাল ট্রেনের চালুর দাবিতে বিক্ষোভ দেখায় সাধারণ যাত্রীরা।৭.৩০ নাগাদ এই বিক্ষোভ শুরু করে বিক্ষোভকারীরা।যার ফলে ব্যাহত হয়েছে ট্রেন চলাচল।যার কারণে বহু মানুষের যাতায়াতে বাঁধা সৃষ্টি হয়েছে।প্রশাসনের আবেদনের শর্তেও তারা বিক্ষোভ তুলতে রাজি নয়। তাঁদের দাবি, “আমরা খেতে পাচ্ছি না। এভাবে না খেয়ে মরার চেয়ে লড়াই করে মরা ভাল। ট্রেনে চড়তে দিতেই হবে।”

এই ঘটনার পরিপেক্ষিতে শিয়ালদহের ডিআরএম এসপি সিং জানান যে, “আমরা ট্রেন চালাতে চাই। রাজ্যের অনুমতি পেলেই ট্রেন চলবে। শিয়ালদহ ডিভিশনে অত্যাধিক চাপ। যার মধ্যে বনগাঁ শাখায় অস্বাভাবিক ভিড়। ফলে কোভিড বিধি মানা হচ্ছে না। ঝামেলা বাড়ছে। যে কোনও সময় বড় দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে।” এই বিক্ষোভের জেরে অনেক ট্রেন দাঁড়িয়ে আছে।চরম সংকটের মধ্যে যাত্রীরা আছেন।যাত্রীদের কথা অনুযায়ী ট্রেনের সংখ্যা বাড়লে দুরুত্ব বজায় রাখা সম্ভব হবে।

কোরোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে রাজ্যের সমস্ত ট্রেন চলাচল স্থগিত রাখা হয়েছিল।কিছুদিন আগে সরকারি ও বেসরকারি কিছু ক্ষেত্রে চার দেওয়া হয়।এর ফলে সাধারণ কর্মীরা ট্রেন চলাচলের দাবি জানায়।এই বিষয় ১৬ জুন ডিআরএম রাজ্য কে চিঠি পাঠায়।যার ফলে শিয়ালদহ যে ৪০ টি ট্রেন বাড়ানো হয়। বর্তমানে মোট ২৫২ টি স্টাফ ট্রেন চলছে।।

Back to top button