“যারা পাল্টি মারছে, তাঁদের দলে ফেরানো হলে আমি কংগ্রেসকে সমর্থন করব” দেবাংশুর ভিডিও ভাইরাল

নিজস্ব প্রতিবেদনতৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য রাজ্য রাজনীতিতে ভীষণ চর্চিত একটা মুখ। তাঁর রাজনৈতিক বুদ্ধি আর যুক্তি-তর্কের সামনে বড়ো বড়ো নেতারাই হার মানেন। এও শোনা যায় যে, দেবাংশুর সথে তর্ক করতে সংকুচিত বোধ করে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দেবাংশু নিজেও কয়েকবার দাবি করেছেন যে, দিলীপ ঘোষ ওনার নাম শুনলে তর্ক সভায় যোগ দেন না।

আজ বাংলার রাজনৈতিক পালাবদলে দেবাংশু ভট্টাচার্যের একটি পুরনো পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব ভাইরাল হচ্ছে। ওই পুরনো পোস্টটি তুলে এনে দেবাংশুকে বিভিন্ন ফেসবুক পেজে ট্রোল করা হচ্ছে। ২০১৯ এর ২৭ মে দেবাংশু তার একটি ফেসবুক পোস্টে লিখেছিলেন, ‘যারা পাল্টি মারছে, ২০২১ এ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর যদি এদের ফেরত নেওয়া হয়, সেদিন থেকে আমি আম আদমি পার্টি বা কংগ্রেসের সমর্থন করব কিংবা অন্য কোনো সমমনভাবাপন্ন দলের পাশে দাঁড়াবো। সেদিন আমি বেইমান হবে। গর্বিত বেইমান। এই দলের সমর্থক আর থাকব না। গড প্রমিস।” এরপর তিনি হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখেন, ‘বেইমানি আর বেইমানের ক্ষমা নেই…”

দুই বছর পরও দেবাংশুর এই পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারও ভাইরাল হচ্ছে। কারণ আজ মুকুল রায় গেরুয়া শিবির ছেড়ে আবারও তৃণমূলে যোগ দিলেন। আর দেবাংশু ভট্টাচার্য এখনও তৃণমূলেই রয়েছেন। যদিও, ওই পোস্টটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর দেবাংশুবাবু ফেসবুকে একটি ভিডিও পোস্ট করে পরিষ্কার করে দিয়েছেন যে কেন তিনি এখনও তৃণমূল ছাড়েন নি? দেবাংশুবাবু ভিডিওতে বলেছেন, “২০১৯ এ আমি তৃণমূলের সমর্থক ছিলাম মাত্র। এখন আমি দলের মুখপাত্র। একজন সমর্থক দলকে নিয়ে এহেন মন্তব্য করতেই পারে।”

Back to top button