‘বাঙালি প্রধানমন্ত্রী চাই’- সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রধানমন্ত্রী দেখার স্বপ্ন

নিজস্ব প্রতিবেদন: আটকে দিয়েছেন মোদী-শাহের বিজয়রথ। কেন্দ্র মুখ্যসচিবকে নয়াদিল্লি টেনে নিয়ে যেতে ব্যার্থ হয়েছে। অবসর নেওয়ার পর তিনি মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা হয়ে গিয়েছেন। তাই যুদ্ধ জিতেই মমতা বললেন,”বাংলা কারও কাছে নত হয় না।” তার অব্যবহিত পরেই টুইটারে শুরু হয়েছে ট্রেন্ডিং, ‘#BengaliPrimeMinister’।

স্বাধীনতার পর বাঙালি রাষ্ট্রপতি দিল্লির রাজ দরবার দেখেছে। তবে বাঙালি প্রধানমন্ত্রী কেউ হননি। ২০২৪ সালে নেটিজেনরা সেই চেয়ারে মমতা ব্যানার্জিকেই দেখতে চাইছেন । টুইটারে শুরু হয়ে গিয়েছে ট্রেন্ডিং, ‘বাঙালিপ্রধানমন্ত্রী’। তৃণমূলের কর্মীসমর্থক থেকে বহু নেটিজেনও একই দাবি তুলেছেন। অনেকে লিখেছেন, ‘বাংলার মেয়েকে চায় ভারত।’ কেউ লিখেছেন,”এই স্বৈরচারি সরকারকে উপযুক্ত জবাব দিতে পারবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই।”

এনিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কী ভাবছেন? সদ্য সাংবাদিক বৈঠকে এই প্রশ্নের জবাবে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, তাঁর অগ্রাধিকার এখন কোভিড নিয়ন্ত্রণ। ঘটনা হল, দেশি-বিদেশি সমীক্ষায় উঠে এসেছে কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের জেরে মোদীর জনপ্রিয়তা অনেকটা পড়তির দিকে। বাংলায় মোদীশাহের বিজয়রথের চাকা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেভাবে মাটিতে বসিয়েছেন তাতে নিঃসন্দেহে তাঁর ওজন বেড়েছে জাতীয় রাজনীতিতে।

Back to top button