“আমার কোনো প্রাক্তন স্ত্রী নেই, প্রাক্তন বান্ধবী নেই।”- এসএসকেএম থেকে বেরিয়ে বললেন মদন মিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: সিবিআইয়ের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল ফিরহাদ হাকিম মদন মিত্র সুব্রত মুখোপাধ্যায় এবং শোভন চট্টোপাধ্যায় । নারদ মামলায় কিছুদিন আগেই গ্রেফতার করা হয় এই 4 জন হেভিওয়েট কে। কলকাতা হাইকোর্টের প্রথম বেঞ্চে এ শুনানি শেষ হয় তাদের এবং সেখানে জামিন মিলেছে চারজনের অন্তর্বর্তী জামিন পেয়েছেন। তবে জামিন পেলেও শারীরিক অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ছিলেন মদন বাবু। তিনি তারপরে সুস্থ হতেই আবার সোশ্যাল মিডিয়াতে ধরা পড়ল তার কাজ কারবার। এসএসকেএম হাসপাতাল থেকে তাকে বের করে নিয়ে যাওয়া হয় তার বাড়িতে। আর সেই সময় তাঁর পরনে ছিল লাল ধুতি পাঞ্জাবি এবং মুখে ছিল লাল মাস্ক।

ফেসবুক লাইভে দিয়ে আসেন এবং স্বমহিমায় তিনি লাইভ করেন। তাকে গান করতে দেখা গেল সেখানে। গতকাল হাসপাতাল থেকে মুক্তি পেয়ে দিনভর ছুটে বেড়িয়েছেন তিনি। অনুরাগীদের জানিয়ে দিয়েছেন তিনি যে এখন তিনি একদম সুস্থ । কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক বাড়িতে গিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন।আর সঙ্গে সঙ্গেই থাকে অক্সিজেন দেওয়া হয় তবে তার পরক্ষণেই তিনি আবার সুস্থ হয়ে ওঠেন। চিকিৎসকরা যদিও বলেছেন মদন মিত্র কে বিশ্রাম নিতে কিন্তু সেই সব কথায় তিনি পাত্তাই দেননি।

তিনি বলেছেন , “আমাকে সুস্থ করে তুলেছেন এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসক এবং নার্সরা। আমি তাদের কাছে কৃতজ্ঞ থাকব। আমার অনুরাগী যারা আমার জন্য প্রার্থনা করেছেন তারা সকলে সুস্থ থাকুন। শকুনের অভিশাপে গরু মরে না কিন্তু আমি চাই শকুনেরাও ভালো থাকুক। “আমার কোন প্রাক্তন নেই আমি প্রাক্তন বলতেই প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে চিনি। আমার প্রাক্তন স্ত্রী নেই, প্রাক্তন বান্ধবী নেই। প্রাক্তন ঝান্ডা নেই। আমি হলাম লয়্যালিস্ট মদন মিত্র । আমার একটাই ঝান্ডা। আর আমার একমাত্র প্রধান উদ্দেশ্য হলো এখন মানুষের সেবা। কামারহাটিবাসীর উদ্দেশ্যে বলছি, আপনাদের জন্য অক্সিজেন ওষুধ নিয়ে আসছেন আপনাদের পরিচিত মদন মিত্র। ও লাভলি!”

Back to top button