গরম কম, বর্ষা অদূরেই, ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থে স্কুল খোলার আর্জি শিক্ষক ও অভিভাবকদের

বংট্রেন্ডি অনলাইন ডেস্ক: সমস্ত স্কুলে গরমের ছুটি পড়ে গিয়েছে। কিন্তু গরমের প্রচন্ড দাবদাহের জন্য দ্বিতীয় দফায় স্কুলের ছুটি নির্ধারিত করেছে রাজ্য সরকার। কিন্তু সেই গরমের তেজ এখন অনেকাংশেই কম। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে জানা গেছে যে জ্যৈষ্ঠ শেষে আশার এর শুরুতে দক্ষিণবঙ্গের দরজায় কড়া নাড়ছে বর্ষা। এই পরিস্থিতিতে স্কুল বন্ধ রেখে ছুটি বাড়ানোর জন্য অনেক অভিভাবক এবং শিক্ষক-শিক্ষিকারা ও আপত্তি জানিয়েছেন।

তাদের বক্তব্য ছাত্র-ছাত্রীদের স্বার্থে পঠন-পাঠন আবার শুরু করা উচিত। উত্তর কলকাতার সরস্বতী বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা জয়তী মজুমদার মিত্র এ বিষয়ে বলেন, ‘‘এখন যদি ছুটি কমিয়ে দু’দিনের মধ্যে স্কুল খুলতে বলে, তা হলেও আমরা তৈরি। স্কুল তো ১৬ জুন থেকে খোলার কথাই ছিল। আমরা প্রস্তুত ছিলাম, আছিও।’’ সুতরাং স্কুলের ছুটি স্থগিত রেখে আবার পঠন-পাঠন শুরু করার মন্তব্য করেন তিনি।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া বিভাগের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, বুধবার রাত থেকেই প্রাক্‌বর্ষা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বঙ্গে। মঙ্গলবার রাতে দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় ঝড়বৃষ্টি হয়েছে। বুধবার সকাল থেকেই আকাশ ছিল মেঘলা। একটু অসস্তি হলেও গরমের যে জালা সেটা কিন্তু অনেকটাই কমেছে। প্রথম দফায় 45 দিন এবং তারপর আরো 11 দিন গ্রীষ্মের ছুটি দেওয়া য় তেতে উঠেছে সমস্ত অভিভাবক।

বিভিন্ন জন বিভিন্ন রকম মন্তব্য করেছেন। ফেব্রুয়ারিতেই স্কুল শুরু হয়েছে তিন মাস যেতে না যেতেই আবার স্কুল বন্ধ। আর খোলার নাম নেই। মনের দিক থেকে পড়ুয়ারা ক্লান্ত হয়ে পড়ছে। মোবাইলে আসক্ত হয়ে পড়ছে স্কুল খোলা থাকলে এসব ঘটনা কম হয়। এইসব বিভিন্ন রকম মন্তব্য করেছেন অভিভাবকেরা।

Back to top button