ফাঁকা ফুটপাথে বেহালায় আকুল করা সুর তুলছেন অসহায় বৃদ্ধ, পাশে দাঁড়ালেন রাজ চক্রবর্তী

নিজস্ব প্রতিবেদন: কলকাতার রাস্তায় রাস্তায় বেহালা হাতে প্রায়ই দেখা যাচ্ছে ভগবান মালিকে। তিনি অত্যন্ত গরীব। ছোট্ট নাতনির খাবার জোগারের জন্য সে বেহালা বাজিয়ে বেড়ায়। তার সাথে ব্যারাকপুরের বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী দেখা করে তার জন্য আস্তানার ব্যাবস্থা করে দিলেন। তিনি তবুও মুখ ফুটে নিজের কষ্টের কথা কাউকে বলতে পারেননা।

জানা গিয়েছে তার নাম ভগবান মালি। তার ছোট্ট নাতনিকে দেখতে মালদা থেকে কলকাতায় আসলে লকডাউনের কারণে এখানেই আটকে পরেন। তাকে দেখা যায় বেহালা হাতে কিছু জনপ্রিয় গানের সুর তুলে তুলে ঘুরে বেড়াতে। তার গান শুনে মানুষজন যথেষ্ঠ আনন্দিত হন। ইতিমধ্যে তাকে সোশ্যাল মিডিয়াতেও দেখা গিয়েছে।

লকডাউনের কারণে তার জামাইয়ের আর্থিক অবস্থাও খুব খারাপ। তাদের মাথা গোঁজারও তেমন ঠাই নেই। লকডাউনের কারণে কাজ না থাকায় অর্থের টানাটানি পড়ায় নাতনির খাবার জোগানে বেহালা হাতে তুলে নেন তিনি। রাস্তায় রাস্তায় বেহালা বাজিয়ে টাকা উপার্জনের সন্ধান করতে থাকেন তিনি। তার গান অনেক শহরবাসীর ভালো লাগতে থাকে এবং তারাও কিছু সাহায্য করতে থাকে। এই ভিডিও ধীরে ধীরে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। তাই দেখে সঙ্গীত পরিচালক স্যাভি তার ভক্তদের কাছে আর্জি জানান যাতে এই পরিস্থিতিতে বৃদ্ধটিকে কেউ সাহায্য করতে পারে৷ ভিডিও দেখে রাজ চক্রবর্তীও তার পাশে এসে দাঁড়ালেন।

খবর পেয়ে বৃদ্ধের গিরিশ পার্কের বাড়ির কাছে চলে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করেন রাজ চক্রবর্তী। তিনি স্থানীয় বিধায়ক তথা মন্ত্রী শশী পাঁজার সঙ্গে কথা বলে ভগবান বাবুর পরিবারের থাকায় একটা ব্যাবস্থা করে দেন এতে ওই বৃদ্ধ খুবই খুশি হন। তাকে এই এলাকায় কোনও বাড়িতে থাকার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এই ঘটনা প্রসঙ্গে রাজ চক্রবর্তী বলেছেন, “একটি মানুষ যখন বিপদে পড়েছেন তাঁর পাশে এসে দাঁড়ানোই আমাদের সকলের কর্তব্য। উনি যত সুন্দর বেহালা বাজান ততটাই ভালো মানুষ।”

Back to top button