আগামী পাঁচ দিন বাংলা-সহ ১০ রাজ্যে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা, সতর্ক করল হাওয়া অফিস

বংট্রেন্ডি অনলাইন ডেস্ক: বহু অপেক্ষার পর অবশেষে দক্ষিণবঙ্গে প্রবেশ করেছে বর্ষা। দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হতে চলেছে। আবার কোথাও কোথাও দেখা মিলতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ সহ ভারী বৃষ্টিপাতের। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর আগামী দিনে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ আরও বাড়তে চলেছে।

অপরদিকে উত্তরবঙ্গে জারি হয়েছে বন্যার সর্তকতা। বেশ কয়েকদিন ধরে হওয়া বৃষ্টির কারণেই এই বন্যা বলে জানা যাচ্ছে। তবে সোমবারের পর থেকে বৃষ্টির পরিমাণ ধীরে ধীরে কমতে চলেছে। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা : 32.1 ডিগ্রি সেলসিয়াস, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা : 26.7 ডিগ্রি সেলসিয়াস, আর্দ্রতা : 79 শতাংশ, বাতাস : 15 কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা, মেঘ : 60 শতাংশ।

বিগত দুই সপ্তাহ ধরে উত্তর পশ্চিম মৌসুমি বায়ু উত্তরবঙ্গে আটকে ছিল যে কারনে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাতের কোন সম্ভাবনা দেখা দিচ্ছিল না। কিন্তু গুমোট গরম বজায় ছিল। এবার দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমী বায়ু প্রবেশ করায় বৃষ্টির আবহাওয়া তৈরি হয়েছে যে কারণে তাপমাত্রা কিছুটা কমেছে। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী আজ কলকাতা, হাওড়া, উত্তর ও দক্ষিণ 24 পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, বর্ধমান, বীরভূমের একাধিক প্রান্তে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা আছে।

দক্ষিণবঙ্গে বেশ কিছুদিন ধরে গুমোট গরম থাকলেও উত্তরবঙ্গে ছিল বৃষ্টির পরিবেশ। উত্তরবঙ্গের বেশকিছু জেলা তথা দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি ও কোচবিহারে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়তে পারে বলে জানা যাচ্ছে। এর জেরে জারি হয়েছে বন্যার সতর্কতা। অবশ্য এরপর থেকে এই বৃষ্টি ধীরে ধীরে কমবে। কিন্তু পুনরায় তা আবার বৃদ্ধি পাবে।

আগামী কয়েকদিনে আবহাওয়ায় আমূল পরিবর্তন আসতে চলেছে। দক্ষিণের বেশ কয়েকটি জেলায় 3-4 ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে চলেছে তাপমাত্রা। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Back to top button