“বিজেপিতে গিয়ে ফেঁসেছেন, তাই পদ বাঁচাতে বারবার দিল্লি ছুটতে হচ্ছে”- শুভেন্দুর দিল্লি গমনকে কটাক্ষ ফিরহাদের

নিজস্ব প্রতিবেদন: নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোটে হারিয়ে জয়লাভ করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। ইতিমধ্যেই শুভেন্দু বিরোধী দলনেতা হিসাবে নির্বাচিত হয়েছেন। কিন্তু দলের অনেকেই দলবদলু শুভেন্দুকে বিরোধী দলনেতা হিসাবে মেনে নিচ্ছেন না।

এক ঘনিষ্ঠ রাখালের কাছ থেকে টাকা নিয়ে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার চেষ্টা করার জন্য শুভেন্দুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, যার ফলে শুভেন্দু এখন যথেষ্ট চাপের মধ্যে রয়েছেন। তাঁর নামে দুটি ফৌজদারি মামলাও চলছে। বিজেপির শীর্ষ নেতারাও চিন্তিত হয়ে রয়েছেন। শুভেন্দু অধিকারী গত মঙ্গলবার সকালেই দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন।

ওখানে গিয়ে শুভেন্দু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার সাথে দেখাও করেছেন। গতকাল বুধবার তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথেও বৈঠক করেছেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সাথে বৈঠক করেছেন শুভেন্দু অধিকারী গতকাল। এই বৈঠকে তাদের মধ্যে কি আলোচনা হয়েছে সেই সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি।

গতকাল দুপুর ১২ টা নাগাদ শুভেন্দু অধিকারী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে দেখা করেছেন। তাঁদের মধ্যে ৪৫ মিনিট কথাবার্তাও হয়েছে। এদিকে ফিরহাদ হাকিম শুভেন্দুর দিল্লি সফরকে কটাক্ষ করে বলেছেন, “বিজেপির এখন শুভেন্দুকে নিয়ে মোহভঙ্গ হয়ে গিয়েছে। বিজেপিও বুঝতে পেরেছে যে শুধুমাত্র শুভেন্দুর উপরে ভরসা রাখলে কাজ হবেনা। প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে দেখা করে তাঁদের মন জোগানোর চেষ্টা করছেন শুভেন্দু অধিকারী।নিজের জায়গা নড়বড়ে বুঝতে পেরেই বারবার দিল্লি ছুটছেন শুভেন্দু। গতকাল আবার দিল্লি গিয়ে শুভেন্দুর সাথে দেখা করেছেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ, অর্জুন সিং এবং নিশীথ প্রামানিক।”

Back to top button