ঝামেলার দিন শেষ এবার থেকে বাড়িতে বসেই করতে পারবেন ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ বা লাইসেন্সের জন্য আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদন: বর্তমান দিনে বাড়িতে বাইক বা চার চাকা নেই এমন পরিবারের সংখ্যা খুবই কম। আর বাইক কেনার আগ্রহ নতুন প্রজন্মের রীতিমতো বেড়েই চলেছে। আবার বাইক ছাড়া তাদের দিনও চলে না পেট্রোলের দাম যতই বৃদ্ধি পাক ,বাবার রাজপুত্ররা বাইক নিয়ে তো বার হবেই।

বাইক নিয়ে আপনি যেখানে ইচ্ছাই যেতে পারেন তবে আপনার কাছে থাকতে হবে ড্রাইভিং লাইসেন্স। যদি আপনার কাছে লাইসেন্স না থাকে, তাহলে আপনাকে কঠোর শাস্তির সম্মুখীন হতে হবে এবং আপনার জরিমানা ও হবে। তবে অর্ধেকের বেশি মানুষের ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই অর্থাৎ তারা কোনো বৈধ কাগজ দেখাতে পারেন না এর ফলে তাদেরকে রীতিমতো সমস্যার মুখে পড়তে হয়।

আবার অনেকে আছেন যাদের ড্রাইভিং লাইসেন্স আছে তবুও তারা লাইসেন্স নিয়ে বার হন না। তবে এমন হলে চলবে না আপনাকে গাড়ি চালাতে গেলে গাড়ির সমস্ত কাগজপত্র রাখতে হবে, না হলে পুলিশ আপনাকে ধরে জরিমানা করবে ,তখন আপনার আইনি কোনো পদক্ষেপ নিতে পারবেন না ।কিন্তু যদি আপনার কাছে লাইসেন্স থাকে তবে আপনি যা ইচ্ছা করতে পারেন।

তবে অনেকে লাইসেন্স করতে চান না কারণ তারা মনে করে এটি একটি বিলাসিতা। ড্রাইভিং লাইসেন্স করার জন্য রীতিমতো অনেক সময় খেয়ে নেয় যা ব্যয় করার মত সময় তাদের নেই তবে এবার ড্রাইভিং লাইসেন্স করার জন্য আর সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না। আপনাকে দীর্ঘক্ষন সময় অপচয় করতে হবে না ,আপনি বাড়িতে বসেই ড্রাইভিং লাইসেন্স করে নিতে পারেন।

ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ বা নতুন করানোর জন্য আপনাকে কেন্দ্রীয় পরিবহনের অফিশিয়াল সাইট Parivahan.gov.in এ যেতে হবে এবং সেখানে Driving License Related Services অপশনটি বেছে নিতে হবে। তারপর বেছে নিতে হবে আপনার রাজ্য।এখন আপনি ড্রাইভিং লাইসেন্স সংক্রান্ত কাজ অনলাইনে করাতে চাইলে Driving Licence বিকল্প বেছে নিতে হবে।

যেখানে আবার রয়েছে New Driving Licence, Services On DL (Renewal/Duplicate/AEDL/Others) সহ একাধিক সাব-ক্যাটাগরি। এবার আপনি আপনার চাহিদা অনুযায়ী পছন্দের অপশনটি বেছে নিয়ে পেমেন্ট করে দিলেই খুলে যাবে পরবর্তী পেজ এবং সেই পরবর্তী পেজে আপনাকে লাইসেন্স এর যাবতীয় তথ্য তুলে ধরা হবে । পরবর্তীকালে কোন স্থানীয় আরটিও অফিসে গিয়ে ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন করলেই মিলে যাবে এই ড্রাইভিং লাইসেন্স।

Back to top button