সুপ্রিম কোর্টে হবে ইলেকশন পিটিশন! মমতাকে হুঁশিয়ারি দিলীপের

নিজস্ব প্রতিবেদননন্দীগ্রামের ভোট গণনায় কারচুপি করা হয়েছে, আর তাই ওই কেন্দ্রের ভোট পুনর্গণনার দাবির কথা জানিয়ে আদালতের কাছে মামলা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।এই নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার কথা বললেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন সকালে তিনি বলেন , “কাউন্টিংএর আবেদন করেছেন? এর আগে হয়নি। সুপ্রিম কোর্টে হবে ইলেকশন পিটিশন। আইনজীবীরা দেখছেন”।

মর্নিং ওয়াকে বেরিয়ে মমতার আদালতে ভোটের পুনর্গণনা করার আবেদন নিয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন যে, “মুখ্যমন্ত্রী হাইকোর্টে যেতেই পারেন। আমরাও যাচ্ছি অনেক বিষয় নিয়ে। অনেক জায়গায় গন্ডগোল হয়েছে। কাউন্টিং এজেন্টকে বের করে দেওয়া হয়েছে। উনিও ন্যায় চাইতে যেতেই পারেন। সবার অধিকার আছে। কিন্তু উনি হেরেছেন এটা ঠিক আবার অন্য জায়গায় দাঁড়াবেন সেটাও ঠিক করে নিয়েছেন। কারণ উনি জানেন যেটা হয়েছে সেটা ঠিকই আছে”।

বেহালার জলছবি সবার পরিচিত।আর এই নিয়ে গতকাল বৈঠক করেন ফিরহাদ হাকিম। তিনি জানান ওই এলাকায় কাজের জন্য সংস্থাকে প্রায় ১ বছরের সুযোগ দেওয়া হয়েছিল কাজ সম্পন্ন করার জন্য,যদি তা না হয় তাহলে ওই সংস্থাকে কালো তালিকাভুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এই ঘটনার পরিপেক্ষিতে রাজ্য বিজেপি সভাপতির কটাক্ষ করে বলেন যে, “যারা ১০ বছরে পারে না তারা ১ বছরে পারবে লোকে বিশ্বাস করবে? আমফানে ৭দিন অন্ধকার ছিল। বলেছিলেন ৭ দিনের আগে কিছু বলবেন না। আজকে যারা গভর্নরকে নিয়ে পড়েছেন সেচ মন্ত্রীর দোষ ধরছেন ক্ষমতায় থাকা কালীন তাদের সব সুবিধে ছিল অথচ কিছু করতে পারেনি দোষটা কার? ইচ্ছে নেই সমাধানের, কেবল রাজনীতি।”

দিলীপ ঘোষ আরো বলেন যে, “ঝড়ে যাদের ঘরবাড়ি গেছে তারা এখন রাস্তায় ত্রিপল পর্যন্ত দিতে পারেননি। ভ্যাকসিন আসছ ১-২ লাখ দিতে পারছেন না। গভর্নরকে ইস্যু করে মানুষকে বোকা বানানোর চেষ্টা করছেন। এবার তো যা যা প্রতিশ্রুতি দেয়েছিলেন তা তো করুন। করতে পারবেন না সবাই জানেন”।।

Back to top button