“অতি বাড় বেড়ো না, ঝড়ে পড়ে যাবে”, এবার সরাসরি মুখ্যমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিরোধী দলের নেতা শুভেন্দু অধিকারী বাংলায় ভোট পরবর্তী হিংসায় বিজেপি কর্মীদের আহত হওয়ার পিছনে সরাসরি দায়ী করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে। শুভেন্দু অধিকারী এদিন উলুবেড়িয়ার বাগনানে আক্রান্ত বিজেপির কর্মীকে দেখতে হাসপাতালে যান। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন,” অতি বাড় বেড়ো না, ঝড়ে পড়ে যাবে।”

উলুবেড়িয়া থেকে শুভেন্দু অধিকারী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিশানা করে বলেন,” সরকার সুপ্রিম কোর্টে একটি হলফনামা দিয়েছে। সেখানে রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসার কথা উল্লেখই করেনি। মমতা সরকার এটাই বোঝাতে চায় যে, বাংলায় কোনও হিংসাই হয়নি। সবই বিরোধীদের রটনা। অতি বাড় বেড়ো না, ঝড়ে পড়ে যাবে।”

রাজ্যে ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বারবার সরব হয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। তিনি ৫০ জন বিজেপি বিধায়ককে সঙ্গে নিয়ে রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ভোট পরবর্তী হিংসা এবং রাজ্যে দলত্যাগ বিরোধী আইন কার্যকর করতে। রাজ্যপাল শুভেন্দুর অভিযোগ শোনার পর আবারও সরব হয়ে বলেন,” বাংলায় গণতন্ত্র নিঃশ্বাস নিতে পারছে না।”

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় আচমকাই দিল্লী যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন সোমবার শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠক করার পর। চারদিনের দিল্লি সফরে যান মঙ্গলবার বিকালে। যাওয়ার আগে তোকে দেখে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং রাজ্য সরকারের নামে। রাজনীতির ময়দানে জল্পনা সৃষ্টি হয়েছে রাজ্যপালের আচমকা দিল্লি যাওয়া নিয়ে।

Back to top button