আপনার কাছে ১ টাকার পুরোনো নোট আছে? থাকলে পেতে পারেন কয়েক লক্ষ টাকা, রইলো বিস্তারিত

নিজস্ব প্রতিবেদন: পুরানো জিনিস সংরক্ষণ করতে ভালোবাসেন অনেক মানুষ। অনলাইনে বেশ চড়া দামে বিক্রি হয় পুরানো ছবি কিংবা মূর্তি। ওই যে কথায় আছে, ‘OLD IS GOLD’, এই মন্ত্রে বিশ্বাসী হয়েই মানুষ পুরানো জিনিস সংরক্ষণ করে। এমন কি ঘরে নির্দিষ্ট জায়গা তৈরি করেন সেগুলি রাখার জন্য। এগুলোকে মানুষের সামনে আনেন বিভিন্ন এক্সিবিশনের মাধ্যমে।

একাধিক ওয়েবসাইট আছে যেখানে পুরানো জিনিস বেচাকেনা হয়। কখনো কখনো কিছু পুরনো জিনিসের দাম লক্ষাধিক টাকা পেরিয়ে যায়। আসলেই পুরনো জিনিসের বয়স এবং তার সাথে জড়িয়ে থাকা কোন ঘটনার ওপর নির্ভর করে তার দাম। উদাহরণস্বরূপ, ডাকটিকিট বর্তমানে বন্ধ হয়ে গেলেও অনেকে হাজার হাজার টাকা খরচ করে ডাকটিকিট সংগ্রহ করেন।

আগে ভারতবর্ষে প্রচলন ছিল এক টাকার নোটের, অবশ্য ২৬ বছর আগেই ১ টাকার নোট ছাপানোর কাজ বন্ধ হয়েছে ভারতে। ১ টাকার নোট ২০১৫সালের ১লা জানুয়ারি ছাপানো শুরু হলেও পরবর্তীকালে তা বন্ধ করা হয়। অবাক করার মতো হলেও, পুরানো দিনের ১ টাকার নোট ভারতীয় বাজারে এখন হাজার টাকা ছাড়িয়েছে। সম্প্রতি, ৪৫ হাজার টাকায় বিক্রি হয়েছে একটি এক টাকার নোটের বান্ডিল। যে বান্ডিল এর মধ্যে আটটি নোটে সই আছে ১৯৫৭ সালের গভর্নর এইএচএম পটেলের।

ইন্ডিয়া মার্ট এবং ওএলএক্স এক সুবর্ণ সুযোগ এনে দিয়েছে তাদের জন্য, যাদের কাছে পুরানো কয়েন কিংবা নোট সংগ্রহ করা আছে। লক্ষাধিক টাকা ছাড়িয়েছে স্বাধীনতার আগের এক নোটের দাম। পুরানো ৫০০,১০০,১০ ও ১টাকার নোটও বেচাকেনা হচ্ছে এইসব ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। আপনি যদি নিলামে অংশগ্রহণ করতে চান এই সব ওয়েবসাইটে একাউন্ট খুলে কয়েন কিংবা ভোটের ছবি তুলে পোস্ট করলে রাতারাতি হয়ে যেতে পারেন লক্ষাধিক টাকার মালিক।

Back to top button