বাবার স্বপ্ন পূরণ করল মেয়ে, আইএএস হয়ে সকলকে চমকে দিলেন সাক্ষী, প্রশংসার ঝড় সোশাল মিডিয়ায়

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের দেশে বেশির ভাগ বাবার স্বপ্ন পূরণ করতে দেখা যায় ছেলেদেরকেই। দেশে বিভিন্ন জায়গায় মেয়েদের উপর অত্যাচারের খবর শোনা যায় এখনো। কন্যা ভ্রূণ হত্যার মতো জঘন্য কাজ ঘটতেই চলেছে সারাদেশে। তবে বর্তমানে সমাজের অনেক মেয়েই এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব হয়ে নিজের স্বপ্ন পূরণ করতে প্রতিনিয়ত লড়াই করে যাচ্ছে। আজ আলোচনা তেমনি এক মেয়ের জীবন কাহিনী নিয়ে।

উত্তরপ্রদেশের এক মেয়ে সাক্ষী গর্গ বাবার স্বপ্ন পূরণ করেছেন সমাজের সমস্ত বাধ্যবাধকতাকে দূরে সরিয়ে। বাবার স্বপ্ন দেখেছিল মেয়ে বড় হয়ে আইপিএস অফিসার হয়ে দেশের সেবা করবে। যে উত্তরপ্রদেশে প্রতিনিয়ত নারী নির্যাতনের খবর শোনা যায়, সেই উত্তরপ্রদেশেরই মেয়ে ইউপিএসসি পরীক্ষায় পাশ করে আইপিএস অফিসার হয়েছে। দেশের হাজার হাজার নারীর অনুপ্রেরণা আজ এই মেয়ে।

সাক্ষী মাধ্যমিকে পেয়েছিলেন ৭৮ শতাংশ নম্বর এবং উচ্চমাধ্যমিকে ৮১.৪ শতাংশ। ইউপিএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার মতো ব্যবস্থা উত্তর প্রদেশের ওই প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছিল না। কিন্তু তিনি হাল ছাড়েননি, এক কোচিং সেন্টারের খোঁজ পান দিল্লিতে। উত্তরপ্রদেশ থেকে দিল্লি চলে আসেন নিজের স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করার জন্য। ২০১৮ সালে পাশ করেন ইউপিএসসি পরীক্ষা তে। নিজের সাফল্যে সমস্ত কৃতিত্ব নিজের বাবা-মাকে দিয়েছেন সাক্ষী। তাঁর জন্য তাঁর বাবা কৃষ্ণকুমার গর্গ ও মা রেনু দেবীর বুকটা গর্বে ভরে ওঠে। তাঁদের মেয়ে আজ দেশের হাজার হাজার নারীর বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণা।

Back to top button