বাজারে ছেয়ে গিয়েছে ৫০০ টাকার জাল নোটে, সতর্কতা জারি করলো আরবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশে কালো টাকার উপর নিয়ন্ত্রণ রাখতে মোদী সরকার সবার প্রথম নোট বন্দি চালু করেছিল। প্রথমে ১০০০ টাকা এবং ৫০০ টাকার নোট পাল্টানো হয়েছিল। এছাড়াও বাজারে বেরিয়েছিল ২০০০ টাকার নতুন নোট এবং ১০০০ টাকার নোট তুলে দেওয়া হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছিলেন এই নোট বন্দীর ফলে বিদেশের মাটিতে থাকা ভারতীয় কালো টাকা উদ্ধার হবে। কিন্তু তার তুলনায় সেই পরিমাণ কালো টাকা উদ্ধার করা সম্ভবপর হয়নি।

দিনের পর দিন লাইনে দাঁড়িয়ে পুরানো টাকার নোট পালটাতে গিয়ে নাজেহাল হয়ে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। এছাড়াও অনেকদিন থেকেই বাজারে দেখা গিয়েছে প্রচুর জাল টাকার ছড়াছড়ি।  নতুন ৫০০ এবং ২০০০ টাকার নোট জাল করাটা যথেষ্ট দুঃসাধ্য বলে মন্তব্য করেছিলো কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের এই দাবি সম্পূর্ণ ভুল প্রমাণিত করে বেশ কয়েকবার ভারতের বাজারে দেখা গিয়েছে জাল ৫০০ এবং ২০০০ এর নোট।এবার আরবিআই জারি করেছে কড়া সতর্কতা।

আরবিআই জানিয়েছে যে, ভারতের বাজারে রীতিমতো ছেয়ে গিয়েছে ৫০০ টাকার জাল নোট। একই রকম আসল নোটের মতোই অবিকল দেখতে এই নোট যে জাল তা ধরতে অনেক সমস্যায় পড়ে যাচ্ছেন ব্যাঙ্ককর্মীরাই। ২০২০ থেকে ২০২১ সালের মে মাসের রিপোর্ট অনুযায়ী জালনোটের হার বৃদ্ধি পেয়েছে ৩১.৩%।২০১৯ সালে জাল নোটের মূল্য ছিল ২ লক্ষ ৯৭ হাজার টাকা। তাই আরবিআই কড়া সতর্কতা জারি করে জানিয়েছে যে, ৫০০ টাকার নোট ব্যবহারের ক্ষেত্রে আর‌ও সতর্ক হতে হবে।

Back to top button