মসজিদ থেকে আরবি ভাষার বদলে হিন্দি ভাষায় শোনানো হোক আজান! দাবি বিজেপি নেতার

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভারতীয় জনতা পার্টির প্রচার সাহিত্য বিভাগের সহ-পর্যবেক্ষক বিকাশ প্রীতম সিনহা বুধবার সরকার আর মৌলবিদের কাছে আর্জি জানান যে মসজিদে যে আজান পড়া হয় তা যেন আরবি ভাষার পাশপাশি আমাদের ভারতীয় ভাষা হিন্দিতেও যেন পড়া হয়। কারণ অনেক ভারতীয় আরবী ভাষা বোঝেন না।

প্রীতম সিনহা বলেন, “দেশের লক্ষ লক্ষ মসজিদ থেকে দিনে ৫ বার আরবি ভাষায় শোনান আজান এই দেশের কোটি কোটি অ-আরবি মানুষ বুঝতেই পারেনা। অতএব সরকার এবং মুসলিম মৌলবিদের কাছে আমার আবেদন যে, আজানের মহত্ব আর বিশেষত থেকে সবাইকে অবগত করতে এর হিন্দু অনুবাদ মসজিদ থেকে বাজানো উচিৎ।”

মসজিদ থেকে মাইক বন্ধ করার দাবিতে এলাহাবাদ হাইকোর্টে মামলার শুনানির সময় অন্য এক মামলার কথা বলা হয়েছিলো সেখানে কোর্ট রায় দিয়েছিল ইসলাম ধর্মের একটি অভিন্ন অংশ হল আজান কিন্তু সেটা মাইক বাজিয়ে নয়।

গোয়ায় লাউডস্পিকারে আজান দেওয়ায় বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। কর্ণাটকে রাত ১০টা থেকে সকাল ৫টা পর্যন্ত লাউডস্পিকার ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ঝাড়খণ্ড হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করে মাইকে আজান দেওয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আইনে বলা হয়েছে, শব্দের তীব্রতা 11dB-এর অধিক করা যাবে না হয় এবং শব্দদূষণ থেকে রক্ষা পেতে ধার্মিক স্থলগুলো থেকে লাউডস্পিকার ব্যান করার খুব দরকার।

Back to top button