দীর্ঘ চার বছরের যাত্রা শেষ, ভারাক্রান্ত মন নিয়ে ‌মুখ খুললেন রাণীমা, আবেগে কেঁপে উঠল গলা

নিজস্ব প্রতিবেদন: ‘রানী রাসমণি’- তে শেষ হল রানিমার পথ চলা। তার অন্তিম যাত্রার সঙ্গে সঙ্গে শুরু হতে চলেছে সন্দীপ্তার যাত্রা। মা সরদার ভূমিকায় দেখা যাবে সন্দীপ্তা সেন কে। গত ৪ ঠা জুলাই ছিল রাণীমার অন্তিম যাত্রা। এক ঘন্টার লম্বা এপিসোড দিয়ে শেষ হলো  দিতিপ্রিয়ার অভিনয় সেটে শেষ যাত্রা। শেষ হলো তার ৪ বছরের এই সংগ্রাম। শেষ মুহূর্তে কথা বলার সময় গলা বুজে আসছিল তার।

যানবাজারের বাড়িতে বসেই অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন রাণীমা ওরফে দিতিপ্রিয়া। তার চলার পথ শুরু হয়েছিল ৪ বছর আগে , বিয়ের পর প্রথম যানবাজারে যখন তিনি প্রথম পা রাখলেন তিনি ছিলেন মাত্র ১১ বছরের। ধনী জমিদার বাবু রাজচন্দ্র মার- এর সঙ্গে বিবাহ হয় তাঁর, তিনি জন্ম দেন ৪ কন্যার এবং ১ পুত্রের।

তবে জম্মের সাথে সাথে পুত্রকে হারান তিনি এবং পরে সন্তানের জন্ম দিতে গিয়ে প্রাণ হারান তার সেজো কন্যা ও কঠিন রোগে প্রাণ হারান তাঁর মেজ মেয়ে। তবে তাঁর দুই মেয়ে পদ্ম রানী এবং যগদম্বা উভয়ের স্বামীরা তুলে নেয় মার বাড়ির সব ভার। তবে ১৮৩৬ সালে স্বামীর মৃত্যুর পর তিনি স্বহস্তে তার জমিদারির ভার তুলে নেন এবং অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে তা পরিচালনা করতে থাকেন। হয়ে ওঠেন সকলের মাতা, অনেকে লোকমাতাও বলতেন।

এদিন সন্ধ্যায় দিতিপ্রিয়ার শেষ দিনে সবাই তাকে ফুল দিয়ে ফেয়ারওয়েল জানালেন। ফুলে ভরে ওঠে চারী দিক । তিনি ৪ বছর ধরে রানী মায়ের ভূমিকায় মনোরঞ্জন করে এসেছেন দর্শক দের । তার সমস্ত শট গুলি ছিল দর্শনীয়। রানিমার চরিত্র তিনি অতসুন্দর করে তুলে ধরেছিলেন তাই ছোট থেকে বড় হয়ে ওঠার পর সব চরিত্রের পরিবর্তন করলেও তাকে পরিবর্তন করেনি।

টিআরপির দিক থেকে দেখতে গেলে, অগনিত বার সপ্তাহের সেরা হয়েছে এই ধারাবাহিক। এদিন দিতিপ্রিয়া নিজেও সকলের প্রশংসা করে বলেন, ” সকলকে যেমন মিস করবেন, তেমনই মিস করবেন এই ধারাবাহিকের সেট, ও মা ভবতারিণীকে।” তবে দর্শক দের জন্য একটি শান্তির খবর এই যে বন্ধ হচ্ছে না ধারাবাহিক এখনও চলবে এই ধারাবাহিক।

Back to top button