দিদি নাম্বার ১ ছেড়ে চলে যাচ্ছি আমি, বলেই লাইভে এসে কান্নায় ভেঙে পড়লেন অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জি, রইলো ভাইরাল ভিডিও

ছোটোপর্দার সবথেকে জনপ্রিয় রিয়ালিটি গেম শো হল দিদি নং ওয়ান। বর্তমানে এটি দিদি নং ওয়ানের নবম সিজন। বছরের পর বছর ধরে এই শো এর সঞ্চালিকার দায়িত্ব সুদক্ষ ভাবে সামলাচ্ছেন রচনা ব্যানার্জি। এই শো এর প্রতিযোগীদের সাথে একাত্ম ভাবে কথা বলতে দেখা যায় তাকে। যেকোনো বয়সী প্রতিযোগীদের সাথে রচনা ব্যানার্জি ভাব জমাতে ওস্তাদ।

মাঝে অবশ্য পারিবারিক কারণে তাকে দিদি নং ওয়ান এর মঞ্চে দেখা যাচ্ছিল না। সেই সময় এই রিয়ালিটি গেম শো সঞ্চালনের দায়িত্বে ছিলেন সুদীপা চট্টোপাধ্যায় ও সৌরভ দাস। যদিও এই দুজন দক্ষ সঞ্চালকদের নিয়ে অখুশি ছিলেন দর্শকেরা। দর্শকদের দাবি ছিল রচনা ব্যানার্জিকে যত দ্রুত সম্ভব সঞ্চালনার দায়িত্বে ফিরিয়ে আনার।

অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জির খ্যাতি সম্পর্কে আমরা সকলেই জানি। কিন্তু দিদি নং ওয়ান এ সঞ্চালিকার দায়িত্বে আসার পর থেকে সেই খ্যাতি উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে। দিদি নং ওয়ানের ট্যাগ এখন রচনা ব্যানার্জির নামের সাথেই যেন লেগে রয়েছে। সম্প্রতি জি বাংলার অফিশিয়াল সোশ্যাল মিডিয়া পেজ থেকে একটি ভিডিও আপলোড হয়। যেখানে দিদি নং ওয়ান এর সঞ্চালনার দায়িত্বে দেখা যাচ্ছে অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে। দর্শকদের উদ্দেশ্যে মিমি কে বলতে শোনা যায় “আজ থেকে আমিই আপনাদের নতুন দিদি, নতুন হোস্ট, নতুন দোস্ত”। তার এই কথা শুনে অবাক হয়ে যান পোডিয়ামে দাঁড়ানো মিঠু চক্রবর্তী, সোমলতা আচার্যরা।

এরপর রচনা ব্যানার্জির আগমন ঘটে। জানা যায় এটা মিমির দুষ্টুমি। তার বহু দিনের ইচ্ছে ছিল দিদি নং ওয়ানে সঞ্চালিকার দায়িত্ব সামলানোর। সম্প্রতি রচনা ব্যানার্জির আরেকটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে তাকে বলতে শোনা গেছে যে দিদি নং 1 এর মঞ্চে তাকে আর দেখা যাবে না। এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই স্বাভাবিক ভাবে মনঃক্ষুণ্ণ হয়েছেন অনেকেই। রচনা ব্যানার্জি “সুরইয়াবনশম্” সিনেমা থেকে অভিনয় জগতে পা রাখেন। শুধুমাত্র বাঙালি দর্শকদের মনে হয় উড়িয়া দর্শকদের মনেও নিজের পাকাপাকি জায়গা করে রেখেছেন রচনা ব্যানার্জি।

Back to top button