৬ মাস তৃণমূলে নো এন্ট্রি, ‘দলবদলু’দের কড়া বার্তা Sougata-র

নিজস্ব প্রতিবেদনভোট পর্বের আগে অনেক বড় বড় নেতা তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গিয়েছিলেন। তবে গত কয়েকমাসের মধ্যেই অনেকের মোহ ভেঙেছে বলে মনে করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে পুরোনো দলে ফিরে আসতে চাইছেন অনেকেই। সেই সমস্ত দলবদলুদের এবার কড়া বার্তা দিলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় । সাফ জানিয়েছেন, দলবদলুদের আগামী ছ’মাস দলে না ফিরতে দেওয়া উচিত। এতে আমাদের কর্মীদের মনোবল ভেঙে যেতে পারে।

দমদমের তৃণমূল সাংসদ বলেন যে, “আমাকে রোজ অনেকেই ফোন করছে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে ৬ মাস মনিটরিং করার পক্ষে রাজি। ৬ মাস কেউ ঢুকবে না। রাতারাতি বলছে দলে ফিরবে। এতে যে কর্মীগুলো জান লাগিয়ে লড়েছে, তাঁরা হতাশ হয়ে যাবে।” এখানেই শেষ নয়, বিজেপিকেও নিশানা করলেন দমদমের সাংসদ। তিনি অভিযোগ করেন, ভোটের আগে বিজেপি টাকা-পয়সা ও গুন্ডা দিয়ে তৃণমূল কর্মীদের উপর অনেক অত্যাচার করেছে।

তৃণমূলে ফিরতে চান , তাই শনিবারই টুইট করলেন সাতগাছির প্রাক্তন বিধায়ক সোনালি গুহ। মমতা বন্দোপাধ্যায় কে উদ্দেশ্য করে একটি চিঠি টুইট করেন তিনি। লেখেন যে, বিজেপিতে তিনি মানিয়ে নিতে পারছেন না। মাছ যেমন জল ছাড়া বাঁচে না, তেমন তিনিও তৃণমূলকে ছেড়ে বাঁচবেন না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যেন তাঁকে নিজের স্নেহতলে ফিরিয়ে নেন। সোনালি গুহর পর রবিবার মালদা জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ সরলা মুর্মু-সহ আরও ছয় সদস্যও তৃণমূলে ফিরতে চেয়েছেন। তবে সৌগত রায়ের বক্তব্য ছিল যে ওই সমস্ত দলবদলু, যাঁরা ফের শাসকদলে ফিরতে চান, তাঁদের আশাহত করবে বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।।

Back to top button