করোনায় আক্রান্ত হলেন কবি জয় গোস্বামী

নিজস্ব প্রতিবেদন:করোনায় আক্রান্ত হলেন কবি জয় গোস্বামী। রবিবার রাতে তাকে ভরতি করা হয় বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে। তবে এই মুহূর্তে তাঁর শারীরিক অবস্থা ঠিক আছে বলে জানা গিয়েছে হাসপাতাল সূত্রে। রবিবার রাতে খবরটি পেয়ে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠেন তাঁর অনুরাগীরা। সকলেই কবির দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন।

জয় গোস্বামীর পরিবার থেকে জানা যায় যে, রবিবার সকাল থেকে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন ৬৬ বছরের কবি।উপসর্গ ছিল জ্বর, সঙ্গে বমি। দেখা দেয় করোনার উপসর্গ।করানোর টেস্টের পর রাতে রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ইতিমধ্যে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। জ্বরে কাবু হয়ে যান তিনি। এরপর আর ঝুঁকি নেয়নি পরিবার। রাতেই তাকে ভরতি করানো হয় বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে। সেখানকার কোভিড ওয়ার্ডে এডমিট করা হয় জয় গোস্বামী কে। শরীরে অক্সিজেনের অভাব কিংবা অন্য কোনও সমস্যার খবর পাওয়া যায়নি এখনও। করোনা টেস্ট করা হয় তাঁর স্ত্রী কাবেরী গোস্বামী কেও এবং মেয়ে দেবত্রীরও। কাবেরীদেবীও সামান্য অসুস্থ বলে খবর পাওয়া গেছে। তাঁকেও ভরতি করা হয়েছে হাসপাতালে। সতর্কতা অবলম্বন করে তাঁরা আপাতত হোম আইসোলেশনেই আছেন।

দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনার থাবা ক্রমশই বাড়ছে। বাংলাও বিশেষ ব্যতিক্রম নয়। যদিও গত ২ দিন ধরে বাংলায় সংক্রমণের গ্রাফ খানিকটা নিম্নমুখী। তা সত্ত্বেও এই মারণ ভাইরাসের কবলে পড়ছেন বহু মানুষ। এমনকী ঘরে থাকলেও করোনাক কামড় থেকে রেহাই পাওয়া যাচ্ছে না। ইতিমধ্যেই করোনার থাবায় হারাতে হয়েছে বাংলায় সাহিত্য জগতের কবি শঙ্খ ঘোষকে। তাঁর মৃত্যুর আটদিন পর করোনায় প্রয়াত হয়েছে তাঁরা স্ত্রী প্রতিমা ঘোষ।

এবার কোভিডের কবলে আরেক প্রতিবাদী কবি জয় গোস্বামী। এমনিতেই জয় গোস্বামী একটু অসুস্থ ছিলেন। সম্প্রতি সাহিত্যসভায় তাঁকে বিশেষ ভাবে দেখা যায়নি।বাড়ি থেকেই কাব্যচর্চায় মগ্ন তিনি। এ বছরও রাজ্য সরকার আয়োজিত রবীন্দ্রজয়ন্তীর ভারচুয়াল অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে আবৃত্তি শোনান জয় গোস্বামী। গৃহবন্দি থেকেও তাঁর শরীরে মারণ ভাইরাস আক্রমণ করলো। কবির শারীরিক পরিস্থিতিতে বেশ উদ্বিগ্ন অনুরাগী মহল। তাঁর বয়স এবং শারীরিক অবস্থা খানিক চিন্তায় রাখছে চিকিৎসকদেরও।।

Back to top button