ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় তাউকটে, যার প্রভাব পরবে বাংলায়

বং ট্রেন্ডি ডেস্ক: আবর সাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণি ঝড়ের প্রভাব বাংলায় পড়তে পারে- একথা আগেই জানিয়েছিল আবহাওয়া দফতর। তবে এই প্রভাব ঝড় বৃষ্টির নয় হবে না। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, এই ঘূর্ণিঝড়ের ফলে বাংলার শুস্ক বাতাস প্রবেশ করবে। ফলে বাড়বে তাপ মাত্রা।

জানা যাচ্ছে, এই ঘূর্ণিঝড় ১৪ ই মে সাগরে থেকে সৃষ্ট হয়ে শক্তি বাড়িয়ে, ১৬ ই মে উপকূলভাগে আছড়ে পড়বে। যার প্রভাবে লাক্ষাদ্বীপ সংলগ্ন উপকূলবর্তী এলাকায় প্রচুর ঝড় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে জানালো আবহাওয়া দপ্তর। প্রায় ৪০ থেকে ৫০ কিলোমিটার বেগে ধেয়ে আসবে উপকূলের দিকে। পরবর্তীতে তা গতি বাড়িয়ে ৮০ কিলোমিটার হতে যেতে পারে। আবার দক্ষিণ-পশ্চিমের দিকেও এই ঘূর্ণিঝড় এর প্রভাব পড়তে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে, এর ভীষণ প্রভাব পড়তে পারে তামিলনাড়ু, কেরল ও কর্ণাটকেও। ইতিমধ্যেই সমুদ্রের মৎস্যজীবীদের জন্য সতর্কবার্তা জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।

শুক্রবার কলকাতা শহরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে থাকবে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশে থাকবে। সকালের দিকে কয়েকটি এলাকায় মাঝে মধ্যে বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির পুরভাবাস আছে। সকাল থেকে থেকে বেশ রোদ থাকলেও বেলার দিকে বৃষ্টি হতে পারে। বাংলায় সরাসরি ঘূর্ণি ঝড় প্রবেশ না করলেও তার প্রভাবে বাতাসের উষ্ণতা বাড়বে।।

Back to top button